reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৩ আগস্ট, ২০২২

ডলার-ইউরোর বদলে স্থান পাচ্ছে ইয়ান, রুপি ও লিরা

ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় সম্পদ তহবিলের (এনডব্লিউএফ) জন্য চীন, ভারত ও তুরস্কের মতো ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ দেশের মুদ্রা কেনার কথা বিবেচনা করছে রাশিয়া।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) সেন্ট্রাল ব্যাংক অব রাশিয়ান ফেডারেশন এ তথ্য জানায়।

এক বিবৃতিতে রুশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, এটি একটি ফ্রি-ফ্লোটিং রুবেল বিনিময় হার নীতি। কিন্তু বাজেট আইন পুনরুদ্ধার করা গুরুত্বপূর্ণ। অন্যথায় তেল বিক্রি থেকে অতিরিক্ত রাজস্ব দুর্দিনের তহবিলের জন্য আলাদা করে রাখতে হবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাজেট আইনের আওতায় আগে এনডব্লিউএফের জন্য ডলার ও ইউরো কিনতো রাশিয়া। তবে অন্যান্য মুদ্রা কেনা হতো না। এখন চীনের মুদ্রা ইউয়ান, ভারতের রুপি ও তুরস্কের লিরা কেনার কথা ভাবছে তারা। সবকিছু ঠিক থাকলে ডলার ও ইউরোর বদলে স্থান পাবে সেগুলো।

চলতি বছরের শুরুর দিকে দেশটির মুদ্রা রুবলের অস্থিরতা বাড়ে। ফলে এ তহবিলের জন্য প্রতিদিনের ফরেক্স (ডলার ও ইউরো) কেনা বন্ধ হয়ে যায়। মূলত ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

এনডব্লিউএফ অর্থ মন্ত্রণালয় দ্বারা পরিচালিত হয়। কিন্তু সেটি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের অংশ। এর মধ্যে ইয়ানও রয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে যার সর্বমোট পরিমাণ ছিল ৬৪০ বিলিয়ন ডলার। তবে পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় অর্ধেক জব্দ হয়ে যায়।

রাশিয়ার কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় চলতি ও আগামী বছর রাশিয়ার অর্থনীতি সংকুচিত হবে। তবে ২০২৪ সালে প্রবৃদ্ধি বাড়বে। ওই সময়ের মধ্যে মূল্যস্ফীতি ৪ শতাংশে নামিয়ে আনার লক্ষ্য রয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
রাশিয়া,ডলার,ইউরো,রুবল,রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close