তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

  ২৭ নভেম্বর, ২০২২

মোবাইল ফোনের ব্যাটারি ভালো রাখতে হলে

মোবাইল ফোন যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনি এর ব্যাটারি লাইফও গুরুত্বপূর্ণ। চার্জহীন মোবাইল ফোনের কোনো মূল্য নেই। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে মোবাইল ফোনের প্রতি আমরা যতটা যত্নশীল হই, ব্যাটারির ক্ষেত্রে থাকি ততটাই উদাসীন।

ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল ফোনের ব্যাটারি লাইফ কমে যায় দিনে দিনে। প্রথম দিকে যেখানে হয়তো ২৪ ঘণ্টা চার্জ ব্যাকআপ থাকত, পুরোনো চার্জারে সেখানে পুরো চার্জ দিয়েও কয়েক ঘণ্টা পরই আর চার্জ থাকে না। এর পেছনের কারণ হচ্ছে ব্যাটারি লাইফের সঠিক যত্ন না নেওয়া। যেহেতু মোবাইল ফোনেই আমাদের এখন সব কাজকর্ম, সামাজিকতা রক্ষা, ব্যবসাসহ সব ধরনের কাজ সম্পন্ন হয়, তাই মোবাইল ফোনের ব্যাটারি লাইফের যত্ন নেওয়াটা জরুরি।

আমরা সাধারণত মোবাইল ফোনে শতভাগ চার্জ করি না। করলেও একেবারে চার্জ শেষ না হওয়া পর্যন্ত ব্যবহার করতে থাকি। এমনটা না করে মোবাইল ফোনে শতভাগ চার্জ দিতে হবে এবং ২০ বা ৩০ শতাংশের নিচে নামার আগেই চার্জ করে নিতে হবে।

ভুল করে সারা রাত ফোন চার্জে রাখার অভ্যাস আমাদের অনেকেরই আছে। ফলে উচ্চ তাপমাত্রা ফোনের ব্যাটারি লাইফকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। ফোন সারা রাত চার্জে রাখার মতো ভুল করা যাবে না। খুব বেশি প্রয়োজন হলে মোবাইল ফোন চার্জে দিয়ে এমন একটি জায়গায় রাখতে হবে, যেখানে বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা আছে। মনে রাখতে হবে, বালিশের নিচে মোবাইল ফোন রাখা যাবে না।

দ্রুত ফোন চার্জ হওয়ার যে প্রযুক্তি আমরা ব্যবহার করি, তা আমাদের সময় বাঁচায়, কিন্তু মোবাইল ফোনের ব্যাটারি দীর্ঘদিন ভালো রাখতে চাইলে কিংবা দীর্ঘদিন একই ফোন ব্যবহার করতে চাইলে ধীরে ধীরে চার্জ করা ভালো।

প্রয়োজন ও ব্যবহার শেষে ব্লুটুথ, ওয়াই-ফাই বন্ধ রাখার মাধ্যমেও ব্যাটারি লাইফ রক্ষা করা যেতে পারে। ব্যবহার শেষে মোবাইল ফোনের এই অপশনগুলো চালু করে রাখার ফলে ব্যাটারি ক্ষয় হয়ে যায়। একবার চার্জ দিয়েই মোবাইল ফোন ব্যবহার করার চেষ্টা করতে হবে। বারবার চার্জে দিলে ব্যাটারির ওপর চাপ পড়ে।

বর্তমানে মোবাইল ফোনের লোকেশন সার্ভিসের সুবিধা কম-বেশি আমরা সবাই গ্রহণ করছি। ফোনের ব্যাটারির ওপর চাপ কমানোর জন্য ব্যবহার শেষে লোকেশন সার্ভিসটি বন্ধ করে রাখতে হবে।

মোবাইল ফোনের উজ্জ্বলতা সর্বাধিক কমিয়ে বা অটোমেটিক মুডে দিয়ে ব্যবহার করলে ব্যাটারি ভালো থাকে। মোবাইল ফোনে যদি ডার্ক-মুড অপশন থাকে, তবে সেটা বেছে নেওয়া যেতে পারে। এর সঙ্গে যুক্ত করা যেতে পারে ব্যাটারি ব্যবহারের স্মার্ট-মুড। বর্তমানের অ্যান্ড্রয়েড কিংবা আইওএস ফোনগুলোতে লো-পাওয়ার মুড, ব্যাটারি-সেভার ধরনের বিভিন্ন অপশন রয়েছে। এগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে মোবাইল ফোনের ব্যাটারি-হেলথ ভালো রাখতে ফোনের সিপিইউ গরম করছে এমন অ্যাপসহ ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকা সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করে ব্যাটারি সুরক্ষিত রাখে। এ ছাড়া ফোনের কিবোর্ড সাউন্ড ও ভাইব্রেশন বন্ধ রাখা, দ্রুত সময়ে ফোনের স্ক্রিন লক করা, যেসব অ্যাপস ব্যবহারে ব্যাটারি দ্রুত ক্ষয় হয়, সেগুলো বন্ধ করতে হবে। অথবা সেগুলো কম ব্যবহার করার বিষয়গুলো বিবেচনা করে ফোন ব্যবহারে আরও যত্মবান হলে শখের মোবাইল ফোনটির ব্যাটারি লাইফ ভালো থাকবে এবং দীর্ঘদিন টিকে যাবে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close