তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

  ২৫ জানুয়ারি, ২০২২

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়

সদ্য প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুসারে প্রতিদিন প্রায় ২০০ কোটি মানুষ নিয়মিত ইউটিউবে ভিডিও দেখেন। প্রত্যেক মিনিটে প্রায় ৫০০ ঘণ্টারও বেশি স্ট্রিম হয় এই প্ল্যাটফর্মে। ফলে বিশাল এই প্ল্যাটফর্ম থেকে বেশি বেশি আয় করার সুযোগও রয়েছে। এবার জেনে নিন ইউটিউব থেকে আয় করার বিস্তারিত নিয়মণ্ড

কনটেন্ট তৈরি : সবার আগে বেছে নিতে হবে কোন বিষয়ে আপনি কাজ করতে চান। আপনার পছন্দ করা কনটেন্ট আপনার নিজের কাছে কতটা ক্লিয়ার? এরপর সেই নির্দিষ্ট বিষয়টির ওপরে তৈরি করুন ভিডিও। আপনার কনটেন্ট যদি একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর হয় এবং ভালো হয়, তাহলে দর্শক আপনার ভিডিও দেখবে।

ভিডিওর কোয়ালিটি : ইউটিউবের ভিডিওর ক্ষেত্রে কোয়ালিটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। ভিডিওর কোয়ালিটি যত ভালো হবে, মানুষের দেখার আগ্রহ ততই বাড়বে। শুরুতে একটি ভালো ক্যামেরা, আলো, মাইক্রোফোন একটি প্রফেশনাল ভিডিও তৈরির জন্য যথেষ্ট। এরপর আরো ইলেকট্রনিকস জিনিস কিনতে পারেন।

টুলস ব্যবহার : দর্শকদের সঙ্গে কন্টাক্ট টুলস ব্যবহার করে নিয়মিত ভিডিও পোস্ট করতে হবে। না করলে আপনি ফলোয়ারদের হারাতে পারেন। এ ছাড়াও প্রত্যেক ভিডিওতে কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করতে হবে। নিজের ভিডিওর ট্রাফিক বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনাকেই নিতে হবে।

চ্যানেলে বিজ্ঞাপন গ্রহণ : ইউটিউব থেকে আয় করার জন্য সবার প্রথমে আপনার চ্যানেলে এক বছরের মধ্যে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে। সাবস্ক্রাইবার সংখ্যায় আপনি টাকা না পেলেও আপনার যত বেশি সাবস্ক্রাইবার হবে তত আপনার আয়ের পরিমাণ বাড়বে। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়- আপনার চ্যানেলে যত বেশি সাবস্ক্রাইবার থাকবে তত বড় বড় কোম্পানি আপনার চ্যানেলে ব্র্যান্ড প্রোমোশনের আগ্রহ দেখাবে।

চ্যানেল মনিটাইজেশন : চ্যানেল মনিটাইজেশন বছর বা ৩৬৫ দিনের মধ্যে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘণ্টা ওয়াচ টাইম হলে আপনার চ্যানেলটি মনিটাইজেশনের জন্য অ্যাপ্লিকেবল হবে। তবে মনিটাইজ হয়ে গেলেই যে টাকা আসবে, তা নয়। মনিটাইজ হলে আপনার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন আসবে। সেগুলোতে কেউ ক্লিক করে সম্পূর্ণ বিজ্ঞাপন দেখলে তবেই রোজগার করতে পারবেন ইউটিউব থেকে। যদিও শুধুমাত্র ইউটিউবের বিজ্ঞাপন থেকে রোজগার শুরুর দিকে বেশি হয় না। তাই ধৈর্য ধরতে হবে।

ইউটিউব পার্টনার : চ্যানেলটি মনিটাইজ হয়ে গেলে ভিডিওতে বিজ্ঞাপন পাওয়ার জন্য ইউটিউব পার্টনার প্রোগ্রামে যোগ দিন। প্রত্যেকটি ভিডিও থেকে আসা টাকার কিছু অংশ কনটেন্ট ক্রিয়েটরদের দেয় ইউটিউব। ইউটিউব স্টুডিও থেকে মনিটাইজেশন বিভাগে গিয়ে চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানো সিলেক্ট করতে পারবেন। এখানেই ড্যাশবোর্ডের মাধ্যমে আপনার ইনকাম দেখে নিতে পারবেন।

ইউটিউব প্রিমিয়াম : ইউটিউবে একবার ইনকাম করা শুরু হয়ে গেলে আপনি ইউটিউব প্রিমিয়ামে সাইন আপ করতে পারবেন। এটির মাধ্যমে আপনার ভিউয়াররা চাইলে কিছু টাকার বদলে বিজ্ঞাপন ছাড়াই আপনার ভিডিও দেখতে পাবেন। এটি আপনার সাবস্ক্রাইবার দের থেকে ইনকাম করার দ্বিতীয় উপায় বলা যায়।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close