গ্রামের পাখি

প্রকাশ | ২০ মার্চ ২০২০, ০০:০০

এখলাসুর রহমান

ব্রহ্মপুত্র নদীর জলে স্নান করে

একটা ছোট্ট শহুরে মিষ্টি পাখি

উড়ে এসে বসল বকুলগাছের ডালে

মৃদু মৃদু বাতাসে দুলছিল তার বকুল ফুলের সারি

আনমনা শহুরে পাখিটা ফুলের দিকে চেয়ে থাকতে থাকতে হঠাৎ দেখে

গুটিগুটি পায়ে এগিয়ে আসছে গাঁয়ের পাখি

মদনের হাসনপুরের ভারী মিষ্টি পাখি ও!

শহুরে পাখিটা চমকে ওঠে থমকে যায়

আরে ও তো দেখি আমার চেয়েও মিষ্টি

দীর্ঘশ্বাস ছুড়ে বলল গ্রামের পাখিকে

তুমি আমায় হারিয়েই দিলে

এসো আমার কাছে এসো

তোমার মিষ্টি গন্ধ শুঁকে মিষ্ট করব আমাকে

তুমি কি আমার বন্ধু হবে?

হবে কি প্রাণের সুজন?

নেবে কি আমায় তোমার হাসনপুরের মোড়ে

যেখানে তুমি থাক।

হে গাঁয়ের প্রিয় মিষ্টি পাখি

তোমার উড়ে চলায় ডানার শব্দে

আমার প্রাণের লোমগুলো জেগে গেল

প্রশ্ন উঠছে প্রাণে

পাখি তুমি কার?

হতে পারো না কি আমার!

আকাশে বাতাসে নদীতে ঢেউয়ে

গাছের ডালে ডালে সর্বত্র

প্রতিধ্বনিত হচ্ছে শহুরে পাখিটার আকুতি

হে পাখি তুমি কার

হতে পারো না কি আমার!

 

"