রাজশাহী ব্যুরো

  ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সাংবাদিকের ওপর হামলা

রাজশাহীতে বিএমডিএর দুই কর্মচারী গ্রেপ্তার

রাজশাহীতে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ১৩ দিন পর ওই ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় জড়িতদের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তায় রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) রাজপাড়া থানার একটি টিম সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ভোর রাত ৪টার দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় অবস্থিত বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের রেস্ট হাউস থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার দুই আসামি হচ্ছেন বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিএমডিএ) ভা-াররক্ষক মো. জীবন ও আবদুস সবুর। এদের মধ্যে জীবন বিএমডিএ কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও আবদুস সবুর বিএমডিএ’র নির্বাহী পরিচালক আবদুর রশীদের গাড়িচালক। এই দুজনকে বিএমডিএ কর্তৃপক্ষ হামলার দিনই সাময়িক বরখাস্ত করেছিল।

এরপর গ্রেপ্তারদের রাজশাহীতে এনে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সোমবার দুপুরে আদালতে হাজির করা হলে আসামিদের পক্ষের আইনজীবী আসাদুল ইসলাম তাদের পক্ষে জামিন আবেদন করেন। পরে শুনানি শেষে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৪ এর বিচারক মোহাম্মদ ফয়সাল তারেক। এরপর দুপুর দেড়টার দিকে আসামিদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

এর আগে অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের কারণে গত ৫ সেপ্টেম্বর এটিএন নিউজের রাজশাহী প্রতিনিধি বুলবুল হাবিব ও ক্যামেরাপারসন রুবেল লাইভ সম্প্রচারে থাকা অবস্থায় বিএমডিএ’র কর্মকর্তা-কর্মচারী নামধারী ক্যাডারদের হাতে হামলার শিকার হন। আর এ হামলার সঙ্গে জড়িতদের মধ্যে ৭ জনের নাম উল্লেখসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মহানগরীর রাজপাড়া থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করা হয়। যে মামলায় সবশেষ রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে আয়োজিত সাংবাদিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেওয়া হয়। এর আগেও মামলার আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় সাংবাদিকরা নানা কর্মসূচি পালন করেন। একই সঙ্গে হামলার সঙ্গে জড়িতরা যেন উচ্চ আদালত থেকে জামিন না পায় সেজন্য বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বিচারপতিদের প্রতি অনুরোধ জানান সিনিয়র সাংবাদিকরা। এর মধ্যে আসামিরা ঢাকায় গিয়ে উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন নেওয়ার চেষ্টা করেন। তবে উচ্চ আদালতের একটি বেঞ্চ তাদের জামিন আবেদন গ্রহণই করেননি।

এদিকে, সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় হামলাকারীদের মধ্যে দুজনকে গ্রেপ্তার করায় পুলিশ প্রশাসনের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন রাজশাহীতে কর্মরত সাংবাদিকরা। একই সঙ্গে হামলায় জড়িত অন্যদেরও দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close