শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি

  ২৬ নভেম্বর, ২০২১

শাহজাদপুরে সাংবাদিকের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সাংবাদিকের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ও হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বিক্ষোভ মিছিলটি শাহজাদপুর প্রেস ক্লাব চত্বর থেকে বের হয়ে থানা চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ শেষে ভিকটিম মাইটিভির শাহজাদপুর প্রতিনিধি জাকারিয়া মাহমুদ বাদী হয়ে রাইয়ান লোদী, আবদুল মজিদের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতানামা আরও পাঁচ থেকে ছয়জনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত বুধবার রাতে শাহজাদপুর পৌর এলাকার ডাকবাংলোপাড়ার পিস ল্যাব অ্যান্ড হসপিটালে সিজারকালে অপচিকিৎসায় খুশি খাতুনের নবজাতকের মৃত্যু ঘটে।

সংবাদ পেয়ে মাই টিভির শাহজাদপুর প্রতিনিধি জাকারিয়া মাহমুদসহ কয়েকজন সংবাদকর্মী তথ্য সংগ্রহের জন্য সেখানে গেলে পিসল্যাব অ্যান্ড হসপিটালের স্বত্বাধিকারী আবদুল মজিদের ভাড়াটিয়া বাহিনী রাইয়ান লোদীর নেতৃত্বে পাঁচ থেকে ছয়জন সন্ত্রাসী সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে বাধা প্রদান করে। প্রতিবাদ করলে সন্ত্রাসীরা জাকারিয়া মাহমুদের ওপর হামলা চালায়। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে প্রেস ক্লাব শাহজাদপুরে জরুরি সভা হয়।

এদিন দুপুরে শাহজাদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি বিমল কুন্ডুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অপর প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শফিকুজ্জামান শফি, সাংবাদিক আবুল কাশেম, সৈয়দ হুমায়ুন পারভেজ শাব্বির, আতাউর রহমান পিন্টু, লাইফ হাসান চৌধুরী, সাগর বসাক, এম এ জাফর লিটন, হাসানুজ্জামান তুহিন, আল আমিন হোসেন, শামছুর রহমান শিশির, ওমর ফারুক, কোরবান আলী লাভলু, মামুন রানা, জহুরুল ইসলাম, মণিরুল গণি চৌধুরী শুভ্র, ফারুক হাসান কাহার প্রমুখ।

মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় সাংবাদিক নেতারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার করতে প্রশাসনকে ৪৮ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দেন। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেওয়া হয়। এ বিষয়ে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিদ মাহমুদ খান বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক দোষীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।’

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close