নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১১ অক্টোবর, ২০২১

আইনমন্ত্রী বললেন

সার্চ কমিটি আইনের কাছাকাছি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন এখনো না হলেও রাষ্ট্রপতি সার্চ কমিটি গঠন করে যেভাবে নিয়োগ দিচ্ছেন, সে পদ্ধতিটিও ‘আইনের কাছাকাছি’। গতকাল রবিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে ‘মিট দ্য রিপোর্টার্স’ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে এই মন্তব্য করেন তিনি।

বাংলাদেশের সংবিধানে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়নের কথা উল্লেখ করা হলেও সেই আইনটি এখনো হয়নি। এই অবস্থায় জিল্লুর রহমান রাষ্ট্রপতি থাকাকালে ২০১২ সালে সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে একটি সার্চ কমিটি গঠন করেন। সেই কমিটির সুপারিশের মধ্য থেকে নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দেন তিনি। একই পদ্ধতি বর্তমান রাষ্ট্রপ্রতি মো. আবদুল হামিদও চালু রেখেছেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, হয়তো বা সার্চ কমিটি গেজেটেড, এটা আইন নয়, যেহেতু সবার কনসেনসাসের ভিত্তিতে রাষ্ট্রপতি এটা করেছেন, এটা আইনের কাছাকাছি। কারণ এটা আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে গেছে। আগামী ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে পাঁচ সদস্যের বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। তাদের পর যে কমিশন গঠিত হবে ২০২৩ সালের শেষে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আয়োজনের ভার থাকবে তাদের ওপরই। বিএনপির সমালোচনার জবাবে আনিসুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন করেছে, করে যাবে, তাদের (বিএনপি) সেটা নিয়ে ভীত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

নির্বাচন কমিশন আইন ও সার্চ কমিটি নিয়ে এক সাংবাদিকের প্রশ্নে আইনমন্ত্রী আরো বলেন, আইনটি করা প্রয়োজন, তবে বর্তমান মহামারি পরিস্থিতিতে এত দ্রুত সম্ভবপর নয়। কোভিড সিচুয়েশন ইমপ্রুভ করলে সংসদে আমরা ৩৫০ সদস্য বসতে পারব, বসে এই রকম একটা গুরুত্বপূর্ণ আইন পাস করতে পারব।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close