নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ওমানের সঙ্গে বাণিজ্য চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ওমানের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে দ্বিপক্ষীয় অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য বা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির প্রস্তাব দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। বাংলাদেশ-ওমানের মধ্যে আয়োজিত এক ওয়েবিনারে তিনি এ প্রস্তাব দেন। গতকাল মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়।

‘বাংলাদেশ-ওমান দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য ও বিনিয়োগ : সুযোগ ও চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এ ওয়েবিনারে বক্তব্য দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। এতে আরো বক্তব্য দেন ওমান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্ডার সেক্রেটারি শেখ খলিফা আলহার্থে, ওমানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মিজানুর রহমানসহ অনেকে।

ওয়েবিনারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, বাংলাদেশ ও ওমানের মধ্যে গত এক দশকে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য তেমন বাড়েনি। তবে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বাড়াতে ও বৈচিত্র্যময় করতে আমাদের আরো অনেক সুযোগ রয়েছে। আমাদের বিশ্বমানের পণ্য যেমন তৈরি পোশাক, সিরামিকস, ফার্মাসিউটিক্যালস, চামড়াজাত পণ্য, হিমায়িত মাছ, পাট-পাটজাত পণ্য, প্রক্রিয়াজাত খাদ্য ইত্যাদি পণ্য ইউরোপ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্বের অন্য স্থানে রপ্তানি হচ্ছে। আমার বিশ্বাস আমাদের ব্যবসায়ীরা ওমানের বাজারে আরো অনেক বেশি প্রতিযোগিতামূলক দামে পণ্য সরবরাহ করতে পারবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ওমানের বাজারে আমাদের পণ্যের প্রবেশাধিকার সহজ করার জন্য আমরা আপনাদের সহযোগিতা চাই। এ ক্ষেত্রে আমরা সুপারিশ করতে চাই, আমাদের দুই দেশের পারস্পরিক বাণিজ্যিক সুবিধার জন্য দ্বিপক্ষীয় অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি বা মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি হতে পারে।

বাংলাদেশ সরকার বিদ্যমান এক্সক্লুসিভ ইকোনমিক জোন ছাড়াও আরো ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছে। আইটি শিল্পের জন্য বেশ কয়েকটি হাইটেক পার্ক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। ‘এক্সক্লুসিভ ইকোনমিক জোন’ এবং ‘হাইটেক পার্কে’ ওমানি বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের আহ্বান জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close