নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

কার্টুনিস্ট কিশোরসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য দিদারুল ইসলাম ভূঁইয়াসহ সাতজনের বিরুদ্ধে দেওয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত। এ ছাড়া মামলার পলাতক চার আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল রবিবার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ আদেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ওই ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী শামীম আল মামুন।

মামলায় সাত আসামির মধ্যে তিনজন জামিনে আছেন। তারা হলেন কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য দিদারুল ইসলাম ভূঁইয়া এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক পরিচালক মিনহাজ মান্নান। আর পলাতক চার আসামি হলেন সুইডেন প্রবাসী সাংবাদিক তাসনিম খলিল, হাঙ্গেরি প্রবাসী সামিউল ইসলাম খান ওরফে স্যাম ওরফে জুলকার নাইন, আশিক ইমরান এবং ওয়াহিদুন নবী। ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী শামীম আল মামুন বলেন, এ মামলায় পলাতক চার আসামির বিরুদ্ধে দেওয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানা-সংক্রান্ত তামিলের প্রতিবেদন ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, অধিকতর তদন্তের পর এ মামলায় গত ১২ জুন কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য দিদারুল ইসলাম ভূঁইয়াসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেয় ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি)।

এর আগে এ মামলায় গত ৪ ফেব্রুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। তাতে কার্টুনিস্ট কিশোর, লেখক মুশতাক আহমেদ ও রাষ্ট্রচিন্তার দিদারুল ভূঁইয়াকে আসামি করা হয় এবং আটজনকে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করা হয়। এরপর ২৫ ফেব্রুয়ারি কারাবন্দি মুশতাক আহমেদ মারা যান। এ কারণে তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশ করা হয়। তবে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ মামলা অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দেয় ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনাল। তাদের বিরুদ্ধে যোগসাজশে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে জাতির জনক, বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ, মহামারি করোনাভাইরাস সম্পর্কে গুজব, রাষ্ট্র ও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করতে অপপ্রচার এবং বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়। মামলার এজাহারে আরো বলা হয়, তারা রাষ্ট্রের জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি, অস্থিরতা ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অপরাধ করেছেন। গত বছরের মে মাসে রমনা থানায় ওই ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে র‌্যাব।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close