বরিশাল প্রতিনিধি

  ০৬ ডিসেম্বর, ২০২০

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ

দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ গ্রেপ্তার ৭

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে ঘটনায় ৭ পুলিশ আহত হয়েছে। এ ঘটনায় সরকারি কাজে বাধাদান ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগ এনে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের আসামি করে গতকাল শনিবার এ মামলা করেছে পুলিশ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত উভয় পক্ষের ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি ওই এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গত শুক্রবার বিকালে আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী রুমা সরদারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষ নৌকা সমর্থকরা উল্লাস করে। এ নিয়ে ওইদিন রাত ৯টার পর থেকে উলানিয়ার লালগঞ্জ বাজারে নৌকা মার্কার প্রার্থী কাজী আবদুল হালিমের সমর্থকদের সঙ্গে প্রতিপক্ষ বিদ্রোহী প্রার্থী রুমা সরদারের সমর্থদের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করলে উভয় পক্ষ পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে মেহেন্দিগঞ্জ থানার ৭ পুলিশ সদস্য আহত হয়। গুরুতর আহত ৩ পুলিশ সদস্যকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় ৪৬ রাউন্ড গুলি করে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে করে। একইসঙ্গে বিবদমান দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি হামলায় ৩৫ জন আহত হয়। এদের মধ্য থেকে ১০ জনকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

------
বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নাঈমুল হক এ বিষয়ে জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও পুলিশকে আহত করার ঘটনায় এবং সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার মামলায় পুলিশ বাদী হয়ে নাম না জানা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করে ৭ জনকে প্রেপ্তার করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে তিনি জানান। প্রকাশ থাকে, আগামী ১০ ডিসেম্বর মেহেন্দিগঞ্জের দক্ষিণ ও উত্তর উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

 

 

"

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়