চমেক হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি

প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০২০, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. ওসমান ফরহাদ ও চমেক ছাত্র সংসদের (চমেকসু) সাহিত্য সম্পাদক সানি হাসনাইন প্রান্তিকের মারধরের ঘটনার প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টার থেকে এই কর্মবিরতি শুরু করেন তারা। ইন্টার্ন চিকিৎসকদের এ কর্মবিরতিতে ভোগান্তিতে পড়েছেন চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা। এর আগে গত বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে চমেক প্রধান ছাত্রবাসে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

একপক্ষ চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন অন্যপক্ষ শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল অনুসারী হিসেবে পরিচিত। উভয়পক্ষের একাধিক কর্মী আহত হওয়ার পর চমেক কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ছাত্রাবাস খালি করে পুলিশ। এ ঘটনার জেরে উভয় পক্ষ চকবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ করে। পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে চমেক হাসপাতালে ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. ওসমান ফরহাদ ও চমেকসুর সাহিত্য সম্পাদক সানি হাসনাইন প্রান্তিক ফোন করে চকবাজার থানার একজন এসআই জানান, লিখিত অভিযোগে আরেকটি স্বাক্ষর করতে হবে, তারা যেন দ্রুত থানায় চলে আসেন। রাত পৌনে ১১টার দিকে স্বাক্ষর শেষে চলে যাওয়ার পথে চকবাজার জয়নগর ১ নম্বর গলির মুখে ১৫ থেকে ২০ জনের তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে দুজন গুরুতর আহত হন। আহত চমেক হাসপাতালে ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. ওসমান ফরহাদ ও চমেক ছাত্র সংসদের (চমেকসু) সাহিত্য সম্পাদক সানি হাসনাইন প্রান্তিক চমেক হাসপাতালের ২৮ নম্বর নিউরো সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

চমেক হাসপাতাল ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য সচিব ডা. তাজোয়ার রহমান খান বলেন, আমাদের ইন্টার্ন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. ওসমান ফরহাদ ও চমেকসু সাহিত্য সম্পাদক সানি হাসনাইন প্রান্তিকের হামলার ঘটনার প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের গ্রেফতারসহ চিকিৎসক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবিতে রাত অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু করেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা। এসব ঘটনার পুনরাবৃত্তি বন্ধে প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নিতে না পারায় একের পর এক চিকিৎসক মারধরের শিকার হচ্ছেন। আমরা চিকিৎসকদের নিরাপত্তাসহ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়ে কর্মবিরতি পালন করছি।

 

"