উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

  ০২ ডিসেম্বর, ২০২২

বাবার মৃত্যু শোক বুকে চেপে পরীক্ষা দিলেন লিপি

আত্মীয় স্বজনদের কান্নায় ভারী হয়ে গেছে বাড়ির চারপাশ। শোকে বিহবল স্বজনরা নিচ্ছেন লাশ দাফনের প্রস্তুতি। সব পরীক্ষার্থীরা যখন বাবা-মায়ের দোয়া নিয়ে পরীক্ষা দিতে আসে, ঠিক সেই সময় বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিতে কেন্দ্রে এসেছেন লিপি আক্তার।

কুড়িগ্রামের উলিপুর বজরা এল. কে. আমিন ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী লিপি আক্তারের বাবা নজির হোসেন (৫২) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বুধবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। বাবার মৃত্যুতে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে তার। অনিশ্চিত হয়ে পড়ে তার পরীক্ষায় অংশ নেওয়া। পরদিন বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় পরীক্ষা ছিল লিপির।

লিপির পরীক্ষা কেন্দ্র পড়েছে উলিপুর মহারাণী স্বর্ণময়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজে। সকাল সাড়ে ১০টার আগেই চোখের জল মুছতে মুছতে কেন্দ্রে আসে সে। সহপাঠী, কলেজের শিক্ষক ও কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সহযোগিতায় পৌরনীতি ও সুশাসন দ্বিতীয় পত্র বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্র্রহণ করে সে।

পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফিরলে দুপুরে তার বাবার লাশ দাফন করা হবে জানান পরিবারের লোকজন।

বজরা এল. কে. আমিন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আহসান হাবীব রানা বলেন, আমরা লিপির বাবার মৃত্যুর খবর শুনে তাদের বাড়িতে গিয়ে তাকে সান্তনা ও সাহস দিয়ে পরীক্ষা দিতে পাঠিয়েছি। কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের বিষয়টি অবগত করেছি। তারা সার্বক্ষণিক তার দিকে নজর রাখবেন।

উলিপুর মহারাণী স্বর্ণময়ী স্কুল অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব জাহাঙ্গীর আলম সরদার বলেন, আমরা লিপির বাবার মৃত্যুর বিষয়টি শুনেছি। বাবা হারানো প্রতিটি সন্তানের জন্য খুবই কষ্টদায়ক।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close