সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ)

  ০৫ ডিসেম্বর, ২০২১

চরাঞ্চলে এলএলপি সেচে বদলে যাবে কৃষি

উল্লাপাড়ায় দুই চরে ৭টি মেশিন স্থাপন

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় দুটি চরাঞ্চলের কৃষিতে আধুনিক সেচব্যবস্থায় ৭টি এলএলপি সেচ মেশিন স্থাপন করা হয়েছে। সামনের বোরো মৌসুমে একযোগে চালু হবে এসব মেশিন। বিএডিসির প্রকল্পে উপজেলার সাতবারিয়া ও চর সাতবারিয়া চরাঞ্চলের আবাদি মাঠে ফুলঝোড় নদী পাড়ে এক কিউসেক এলএলপি সেচ মেশিনগুলো বসানো হয়েছে। বোরো ধানসহ যে কোনো ফসলের আবাদে জমিতে পানি সেচে সারফেজ ওয়াটার সেচব্যবস্থায় ফুলঝোড় নদীর পানি ব্যবহার করা হবে।

বিএডিসি (ক্ষুদ্র সেচ) উল্লাপাড়া জোন অফিস থেকে জানা যায়, উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের পাশাপাশি অবস্থানে সাতবারিয়া ও চর সাতবারিয়া মাঠে ৭টি এক কিউসেক এলএলপি সেচ মেশিন বসানো হয়েছে। সেচ মেশিনগুলোর ক্ষতি না হওয়া ও নিরাপদ রাখতে পাকা ঘর করা হয়েছে। প্রতিটি সেচ মেশিনের আওতায় ৩ হাজার ৩০০ ফুট ভূগর্ভস্থ সেচনালা নির্মাণ করা হয়েছে। একটি সেচ মেশিনের আওতায় প্রায় ১০০ বিঘা জমি নিয়ে স্কিম ও উপকারভোগী কৃষক সংখ্যা প্রায় ৭০ জন। এছাড়া প্রতিটি সেচ মেশিন স্কিমভুক্ত কৃষকদের নিয়ে সমবায় সমিতি ভিত্তিতে চলবে। বিদ্যুৎ চালিত এ সেচ মেশিনগুলোর আওতায় আবাদি জমিতে পানি সেচ বাবদ কৃষকদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হবে।

সরেজমিন মাঠ দুটিতে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিটি সেচ মেশিনের জন্য পাকা ঘরসহ ভূগর্ভস্থ সেচনালা নির্মাণকাজ অনেক আগেই শেষ হয়েছে। এলাকার কৃষকরা জানান, বর্ষাকালে আবাদি মাঠ দুটি বন্যার পানিতে তলিয়ে যায়। চরের জমি হলেও সব ধরনের ফসলের আবাদ হয়ে থাকে। আধুনিক সেচব্যবস্থায় কৃষকদের সবাই খুশি বলে জানান তারা। কৃষক খোরশেদ আলী বলেন, আধুনিক সেচব্যবস্থায় বোরো ধানসহ যে কোনো ফসলের আবাদে পানি সেচ খাতে কম টাকা খরচ হবে বলে তাদের বেশ উপকার হবে।

বিএডিসি (ক্ষুদ্র সেচ) উল্লাপাড়া জোনের সহকারী প্রকৌশলী জাহিদ হাসান বলেন, চরাঞ্চল দুটিতে উন্নত কৃষি ব্যবস্থায় পানাসি সেচ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। আধুনিক সেচব্যবস্থায় আবাদি জমি যেন নষ্ট না হয় এর জন্য ভূগর্ভস্থ সেচনালা নির্মাণ করা হয়েছে। অচিরেই সেচ মেশিনগুলোয় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হবে। সেচ মেশিনগুলো চালুর মাধ্যমে আধুনিক আর উন্নত কৃষি ব্যবস্থায় চরাঞ্চলের কৃষকদের জীবনমানেরও উন্নয়ন হবে বলে তিনি জানান।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close