কচুয়া (চাঁদপুর) ও নরসিংদী প্রতিনিধি

  ০৪ ডিসেম্বর, ২০২১

রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার পুকুর থেকে

রায়পুরায় নিখোঁজের ৪ দিন পর শিশুর গলিত মরদেহ উদ্ধার

কচুয়ায় পুকুর থেকে রাসেল হোসেন (৩৫) নামে এক রিকশাচালকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলার গোহট দক্ষিণ ইউনিয়নের চাপাতলী প্রধানিয়া বাড়ির পাশের পুকুর থেকে লাশ ও রিকশাটি উদ্ধার করা হয়। নিহত রাসেল হোসেন পার্শ্ববর্তী হাজীগঞ্জ উপজেলার মৈশামুড়া গ্রামের মো. ইউসুফের ছেলে। সে পরিবারসহ কচুয়া উপজেলার বলরা গ্রামে ভাড়া থাকত।

প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল মজুমদার, রুবেল হোসেন ও আবু বকর জানান, শুক্রবার সকালে পুকুরে এক অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ ভাসতে দেখেন। পুলিশকে খবর দিলে তারা পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে তার সন্ধান পাওয়া যায়। তিনি পেশায় একজন রিকশাচালক। দীর্ঘদিন সে এ এলাকায় রিকশা চালাত। এছাড়া তার মৃগী রোগ রয়েছে বলেও জানায় পরিবারের লোকজন। ধারণা করা হচ্ছে, রিকশা চালানো অবস্থায় হঠাৎ তার মৃগী রোগ দেখা দিলে রিকশাসহ পুকুরে পরে মৃত্যু হয় তার।

ওসি মো. মহিউদ্দিন জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ উদঘাটন হবে।

এদিকে নরসিংদী প্রতিনিধি জানান, রায়পুরায় নিখোঁজের ৪ দিন পর পরিত্যক্ত একটি ডোবা থেকে ইয়ামিন মিয়া (৮) নামে এক শিশুর গলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার উত্তর বাখরনগর ইউনিয়নের বাখরনগর গ্রামের একটি ডোবা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। ইয়ামিন মিয়া বাখরনগর গ্রামের প্রবাসী জামাল মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত ২৮ নভেম্বর উত্তর বাখরনগর ইউপি নির্বাচনের দিন থেকে নিখোঁজ ছিল ইয়ামিন। নিখোঁজের পরের দিন থেকেই ফোনে এবং বিভিন্ন সময়ে শিশুটির পরিবারের কাছে দশ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছিল দুর্বৃত্তরা। বিভিন্ন সময়ে মুক্তিপনের মেসেজ পেয়ে তার পরিবার পুলিশের শরণাপন্ন হয়। পরে গত ১ ডিসেম্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এরপর থেকে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধারে কাজ শুরু করলেও তার কোনো খোঁজ মেলেনি। সবশেষ শুক্রবার সকালে বাখনগর গ্রামের মোতালেব মিয়ার বাড়ির পেছনে একটি ডোবা থেকে গলিত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রায়পুরা থানার পরিদর্শক (অপারেশন্স) আতাউর রহমান বলেন, নিখোঁজের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে ওই পরিবারের কাছে দশ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করে আসছিল দুর্বৃত্তরা। ওই শিশুর মা বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ করেছিলেন। মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এবং পরবর্তী আইনি পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close