গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি

  ২৫ নভেম্বর, ২০২১

গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

বেড়েছে ডায়রিয়াসহ ঠাণ্ডাজনিত রোগ

ঋতু পরিবর্তন হচ্ছে, জেঁকে বসেছে শীত। হঠাৎ ঠাণ্ডা পড়ায় অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধরা ঠাণ্ডাজনিত রোগের পাশাপাশি আক্রান্ত হচ্ছেন ডায়রিয়ায়। প্রতিদিন গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হচ্ছেন শিশুসহ বৃদ্ধরা। বাড়ছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা। প্রতিদিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি ও বহির্বিভাগে ঠাণ্ডাজনিত রোগে দুই শতাধিক রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। অনেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়ে দ্রুত ভালো হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছেন ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীরা।

গতকাল বুধবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঘুরে দেখা গেছে, জরুরি ও বহির্বিভাগের সামনে লাইনে দাঁড়িয়ে অনেক রোগীকে চিকিৎসা নিতে দেখা গেছে। অনেকের জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্টসহ পাতলা পায়খানার রোগীর সংখ্যা বেশি। এছাড়া পুরুষ ও নারী ওয়ার্ডসহ শিশু ওয়ার্ডের প্রতিটি বেডেই রোগী ছিল পূর্ণ।

বোয়ালিয়ার কাউন্সিল বাজার এলাকার শিশু কুসুমের মা জানান, গত তিন দিন আগে তার দুই বছরে মেয়ে ডায়রিয়া আক্রান্ত হলে হাসপাতালে ভর্তি হয়। চিকিৎসা পেয়ে এখন সে সুস্থবোধ করছে। তার দেবরের মেয়ের একই অবস্থা ছিল। গতকাল বুধবার দুপুরে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে দুই শিশুকে বাড়ি নিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরো জানান, প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ জন শিশু হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জরুরি বিভাগে ডায়রিয়ার চিকিৎসা নিতে আসা নুরুল ইসলাম বলেন, রাত থেকেই পেটের ব্যথা অনুভব করি। এ সময় পাতলা পায়খানাও হয়েছে কয়েকবার। সকালে হাসপাতালে ভর্তি হই।

হাসপাতালের নার্সিং সুপারভাইজার মোসলেমা জানান, গত ৪৮ ঘণ্টায় ৪২ জন ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ১১ জন, নারী ১৫ ও শিশু ১৪ জন ডায়রিয়া রোগী। এ ছাড়া নিউমোনিয়ায় দুজন রোগী রয়েছেন।

আবাসিক চিকিৎসক ডা. নাসিরুদ্দিন জানান, ঋতু পরিবর্তন হওয়ায় গত ১৫ দিন থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া জরুরি ও বহির্বিভাগ থেকে পাঁচ শতাধিকের ওপরে বিভিন্ন রোগের লক্ষণ নিয়ে চিকিৎসা নিতে যান।

স্বাস্থ্য ও প. প. কর্মকর্তা ডা. মাসুদ পারভেজ জানান, আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে জ্বর, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়াসহ অন্যান্য রোগী বেড়েছে। আমরা ডায়রিয়া রোগীদের সর্বোচ্চ চিকিৎসাসেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close