চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

  ১৫ অক্টোবর, ২০২১

কাজে আসছে না ৮ ফুটওভার ব্রিজ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম অংশে আটটি ফুটওভার ব্রিজ দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। জনসাধারণের জন্য নির্মিত এই ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে কেউ আগ্রহ দেখাচ্ছে না। দুর্ঘটনা এড়াতে সরকার কোটি কোটি টাকা খরচ করে এসব ব্রিজ নির্মাণ করে।

উপজেলার ৪৪ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে উত্তরে চারটি ও সর্ব দক্ষিণে চারটিসহ মোট আটটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হয়েছে। রেড জোন এলাকা পরিহার করে বিভিন্ন পথচারীরা যেন নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে সেই চিন্তা মাথায় রেখে নির্মিত হয়েছে আটটি ওভার ব্রিজ। কিন্তু পথচারীরা ওভার ব্রিজ ব্যবহার না করে মহাসড়কে যাতায়াতে দূরপাল্লার গাড়ি থামিয়ে প্রতিদিন রাস্তা পার হচ্ছে।

উপজেলার মিয়াবাজার কলেজ রোড, কালিকাপুর ইউনিয়নের মিরশ্বান্নী বাজার, চৌদ্দগ্রাম কলেজ রোড, চৌদ্দগ্রাম বালিকা বিদ্যালয় রোড, জগন্নাথদিগি ইউনিয়নের ফাঁসি বটগাছ, গাংরা, পুদুয়ার রাস্তার মাথা ও লাটিমির রাস্তার মাথাসহ মোট আটটি ফুটভার ব্রিজ নির্মাণ করা হয়।

পথচারীর এক নারী জানান, এত ওপরে উঠা কী দরকার। ফাঁকা হলে আমরা সড়ক পার হব কোনো সমস্যা নেই। দেখেন সবাই তো গাড়ি থামিয়ে রাস্তা পার হচ্ছে। চৌদ্দগ্রাম হাইওয়ে থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, আমরা সব সময় চেষ্টা করি যেন পথচারীরা ওভার ব্রিজ ব্যবহারে আগ্রহী হন। দেখা গেছে অনেকে সচেতনতার অভাবে গাড়ির সামনে দিয়ে হুট করে রাস্তা পারাপার করছে। আশা করি সবাই একটু সাবধানতা অবলম্বন করলে দুর্ঘটনা এড়ানো যাবে।

এ বিষয়ে কথা হয় চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মনজুরুল হকের সঙ্গে। তিনি বলেন, ঢাকা-চট্টাগ্রাম মহাসড়কে বিভিন্ন যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ থাকে। এক সেকেন্ডের জন্য মহাসড়ক ফাঁকা থাকে না। বলতে গেলে অত্যন্ত ব্যস্ততম সড়ক এটি। সরকার দুর্ঘটনা কবলিত এলাকাগুলোতে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করেছে। বিভিন্ন পথচারী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন রাস্তা পার হচ্ছে। এতে অনেকে সড়কে প্রাণ হারাচ্ছে। আপনাদের মাধ্যমে সবাইকে বলছি ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে অভ্যাস গড়ে তুলুন।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close