কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি

  ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আ.লীগ নেতার কুড়ালের নিচে শতবর্ষী দুই গাছ

গাজীপুরের কালীগঞ্জে বোয়ালী উচ্চ ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় শত বছরের পুরোনো দুটি জাম গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী এক আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এ বিষয়ে ইউএনও বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। অভিযুক্ত আবদুল গণি ভূঁইয়া উপজেলা আ.লীগের সাবেক সম্পাদক হলেও বর্তমান কমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন। তিনি উপজেলার তুমলিয়া ইউনিয়নের বোয়ালী উচ্চবিদ্যালয় পরিচালনা পর্যদের সভাপতি ও বোয়ালী গ্রামের বাসিন্দা।

বোয়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সাবেক সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন পটু জানান, প্রায় শত বছরের পুরোনো দুটি জাম গাছের মূল্য লক্ষাধিক টাকা। কিন্তু বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভাপতির একক ক্ষমতায় নামমাত্র মূল্যে গাছ দুটি বিক্রি করেছেন। গাছ কাটার বিষয়টি আওয়ামী লীগ নেতা ও বিদ্যালয়ের সভাপতি আবতুল গণি ভূঁইয়া বলেন, ‘আমি আমার ক্ষমতায় গাছ কাটছি, পারলে কেউ কিছু করুক। ইউএনও সাহেবও বিষয়টি জানেন।’

অনুমতি নিয়েছেন কি না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আমি বিদ্যালয়ের সভাপতি। আমি কার কাছে থেকে অনুমতি নিব? বিদ্যালয়ে নতুন ভবন নির্মাণের বরাদ্দ হয়েছে, তাই কেটে ফেলেছি।’ বোয়ালী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবা বেগম জানান, গত ৮ সেপ্টেম্বর দপ্তরী মফিজ উদ্দিন স্কুল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে যান। এ সময় জাম গাছ দুটি কেটে নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে দেখেন। পরে বিষয়টি ফোনে অবগত করেন। তাৎক্ষণিকভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আবদুল গণি ভূঁইয়াকে ফোন দিলে তিনি গাছ কাটার বিষয়টি জানেন বলে জানান। ইউএনও শিবলী সাদিক বলেন, বিদ্যালয়ের গাছ কাটার বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close