সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

  ২৬ নভেম্বর, ২০২০

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা, স্বামী আটক

সাতক্ষীরায় সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী পারভীন আক্তারকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার ভোররাতে সাতক্ষীরা সদরের লাবসা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। গ্রামবাসী নিহতের স্বামী আবদুল খালেককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। নিহত পারভীন আক্তার (২৪) রাজনগর গ্রামের আব্দুর রহিমের মেয়ে। স্বামী আবদুল খালেক পাশর্বর্তী হাজিপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে।

নিহতের ভাই রাজনগর জামাইপাড়ার ইটভাটা শ্রমিক তরিকুল ইসলাম জানান, পারভীন আক্তারের সঙ্গে ভাটাশ্রমিক আবদুল খালেকের আট বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের একটি মেয়ে রয়েছে। পারভীন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। সম্প্রতি খালেক একই এলাকার এক নারীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। এনিয়ে এক সপ্তাহ ধরে স্বামীর সঙ্গে পারভীনের বিরোধ চলছিল। বুধবার রাতের কোনো একসময় পারভীনকে নির্যাতনের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে স্বামী আবদুল খালেক। এরপর কাঁথা দিয়ে লাশ ঢেকে বাইরে থেকে দরজায় তালা লাগিয়ে ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের ইটভাটায় কাজ করতে যান।

------
সদর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান বলেন, স্থানীয়দের দেওয়া খবরের পর দুপুর ১২টার দিকে পারভীন আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী আবদুল খালেককে আটক করা হয়েছে। বিস্তারিত পরে জানা যাবে।

 

 

"

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়