প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ০৬ আগস্ট, ২০২২

শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী

মহানগরে নানা আয়োজন

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যৈষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে সারা দেশের মতো চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহেও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, দোয়া মহফিল অনুষ্ঠিত হয়, সেখানে বিশিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

চট্টগ্রাম ব্যুরো : শুক্রবার (৫ আগস্ট) সকালে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নগর ভবনের কনফারেন্স রুমে দোয়া ও আলোচনা সভা হয়, সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামাল ছিলেন অদম্য বিনম্র সংস্কৃতিবান। তিনি ছাত্রলীগের একনিষ্ঠ কর্মী ও সংগঠক হিসেবে ছয় দফা, এগার দফা আন্দোলন ও ৬৯-এর অগ্নিঝরা গণআন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। শেখ কামাল পড়ালেখার পাশাপাশি ক্রীড়া, সংস্কৃতি, সংগীত চর্চা, অভিনয়, বিতর্ক ও উপস্থিত বক্তৃতা থেকে শুরু করে বাংলা ও বাঙালির সংস্কৃতিকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধেও বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সচিব খালেদ মাহমুদের সভাপতিত্বে এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমাজকল্যাণ স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর আবদুস সালাম মাসুম। উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, সাহেদ ইকবাল বাবু, হাসান মুরাদ বিপ্লব, আবুল হাসনাত মোহাম্মদ বেলাল, শৈবাল দাশ সমুন, পুলক খাস্তগীর, নুর মোস্তফা টিনু, সংরক্ষিত কাউন্সিলর তসলিমা বেগম, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা লুৎফুন নাহার, মেয়রের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাসেম, শিক্ষা কর্মকর্তা উজালা রাণী চাকমা, উপ-সচিব আশেক রসুল চৌধুরী টিপু প্রমুখ। মিলাদ ও মুনাজাত পরিচালনা করেন সিটি করপোরেশনের মাদরাসা পরিদর্শক মাওলানা মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ চৌধুরী।

খুলনা ব্যুরো : শহীদ শেখ কামালের ৭৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা শুক্রবার (৫ আগস্ট) দুপুরে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র শেখ কামাল তৎকালীন সদ্য স্বাধীন হওয়া বাংলাদেশের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র ছিলেন। দেশে আধুনিক ফুটবলের ধারণা তিনিই নিয়ে আসেন। তার চেষ্টায় আবাহনীর মতো সফল ফুটবল ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে সমাজবিজ্ঞানে গ্র্যাজুয়েট শেখ কামাল ছায়ানটসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এবং নিজেও সেতার বাজাতেন। মহন মুক্তিযুদ্ধে তার অসামান্য অবদান রয়েছে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী, জেলা পরিষদের প্রশাসক শেখ হারুনুর রশীদ ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান। এ সময় খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আলমগীর কবির বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সাদিকুর রহমান খান।

পরে অতিথিরা বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠপুত্র বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে বৃক্ষ বিতরণ কর্মসূচি পালিত হয়।

রাজশাহী ব্যুরো : রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে ‘শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামাল : নির্মল তারুণ্যের অগ্রদূত’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরউল্লাহ এনডিসি বলেন, দেশকে শত্রুমুক্ত করার অভিপ্রায়ে বঙ্গবন্ধুর ডাকে ক্যাপ্টেন শেখ কামালও যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রধান সেনাপতি এম এ জি ওসমানীর এডিসি ছিলেন শেখ কামাল। তিনি শেখ মুজিবের উত্তরসূরি হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছিলেন।

শহিদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালকে তারুণ্যের উজ্জ্বীবিত প্রতীক উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, আজকের আলোচনা সভার মুখ্য উদ্দেশ্য শেখ কামালের জীবন থেকে আমাদের যুবসমাজ কী শিখবে, কী জানবে, কেন তাকে অনুসরণ করবে, তার প্রতি আমাদের কি দায়বদ্ধতা আছে তা জানা এবং তার অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করা। কারণ, শেখ কামাল ছিলেন একজন ‘অলরাউন্ডার’ ব্যক্তিত্ব। তিনি আবাহনী ক্রীড়াচক্র প্রতিষ্ঠা করেন। ভালো গান করতেন, সেতার বাজানোতেও বেশ পারদর্শী ছিলেন। যে গুণাবলি থাকলে একজন মানুষ অনুকরণীয় ও অনুসরণীয় হয়ে উঠতে পারে, এর প্রায় সব গুণাবলি শেখ কামালের মধ্যে ছিল। এ সময় বিভাগীয় কমিশনার শেখ কামালের জীবনী থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশের উন্নয়নে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে এগিয়ে আসতে উদ্বুদ্ধ করেন।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আবদুল জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি মো. আবদুল বাতেন, আরএমপি কমিশনার মো. আবু কালাম সিদ্দিক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইফতেখার আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আবদুল মান্নান, নিউ গভ. ডিগ্রি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. অলীউল আলম প্রমুখ।

এর আগে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

রংপুর ব্যুরো : শুক্রবার (৫ আগস্ট) রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে মুক্ত মঞ্চে শেখ কামালের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে রংপুর সিটি করপোরেশন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন মিঞা, সচিব উম্মে ফাতেমা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্র্রেট মাহামুদ হাসান মৃধা, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. নাঈম উল হক, প্রধান হিসাবরক্ষক কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান, স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান আবদুল কাইয়ুমসহ অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

ময়মনসিংহ (মহানগর): মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের মাধ্যমে ময়মনসিংহে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র এবং ক্রীড়া সংগঠক শেখ কামালের জন্মদিন পালন করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। শুক্রবার সকালে নগরীর টাউন হল প্রাঙ্গণে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ১৫ আগস্টে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সব শহীদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের পরিচালনায় এ আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সাদেক খান মিল্কী টজু, মোমতাজ উদ্দিন মন্তা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ কুদ্দুস, শওকত জাহান মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ আলী আকন্দ, দপ্তর সম্পাদক অধ্যক্ষ আবু সাইদ দীন ইসলাম ফখরুল, সাবেক ছাত্রনেতা হুমায়ুন কবীর হিমেল প্রমুখ।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close