নিজস্ব প্রতিবেদক

  ২৪ জুন, ২০২১

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা শেষে মেয়র আতিক

সবার প্রচেষ্টায় আধুনিক ঢাকা গড়ব

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, সবার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় একটি সুস্থ, সচল ও আধুনিক ঢাকা গড়ে তুলতে হবে।

গতকাল বুধবার সকালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে ডিএনসিসির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কাউন্সিলরদের সঙ্গে নিয়ে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

------
ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পুরান ঢাকার রোজ গার্ডেনে এক ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জন্ম হয়। জন্মলগ্ন থেকেই স্বাধিকার আন্দোলনসহ দেশ ও জাতি গঠনের প্রতিটি ধাপে দলটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে।

মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগের মাধ্যমেই বঙ্গবন্ধু ১৯৬৬ সালে বাংলার জনগণকে বাঙালি জাতীয়তাবাদের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে ঐতিহাসিক ৬ দফা ঘোষণা করেন। সেই ৬ দফা আন্দোলনের পথ বেয়েই ১৯৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ১৯৭০-এর নির্বাচনে বাঙালির নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ ও ১৯৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে পৃথিবীর মানচিত্রে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে। তিনি বলেন, বাংলা ভাষাসহ বাংলাদেশের জন্য বঙ্গবন্ধুর যে অতুলনীয় অবদান তা ইতিহাসে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। বাঙালি জাতি তাকে গভীর শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞতাচিত্তে স্মরণ করবে চিরকাল।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর চরম প্রতিকূল পরস্থিতিতে পড়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। ১৯৮১ সালে দলের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর দেশে ফিরতে সক্ষম হন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলেই দলটি সুসংগঠিত হয় এবং ১৯৯৬ সালে তার নেতৃত্বেই দীর্ঘ ২১ বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে।

মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, গণতন্ত্রের মানসকন্যা শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ১৯৯৬ সালের ১২ জুন সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবার, ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দ্বিতীয়বার, ২০১৪ সালের ৫ জানুযারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তৃতীয়বার এবং সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চতুর্থবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, দেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করতে বঙ্গবন্ধু কন্যার ‘ভিশন ২০২১’, ‘ভিশন ২০৪১’ ও ‘ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ এর মতো যুগান্তকারী কর্মসূচি বিশ্বে আজ রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘ চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে।

সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়ে নৌকা প্রতীকে সিটি করপোরেশনবাসীর ভোটে মেয়র নির্বাচিত হওয়া তার জীবনের অন্যতম বড় প্রাপ্তি উল্লেখ করে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে তার স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় আমাদের সবাইকে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে।

মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ঢাকাকে দখল, দূষণ ও দুষ্ট লোকের কবল থেকে মুক্ত করে সবার বাসযোগ্য একটি সুস্থ ও সুন্দর নগরী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে জনকল্যাণে কাজ করতে হবে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close