নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১৮ মার্চ, ২০২৩

ডেমোক্রেটিক পার্টির বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উদযাপন

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৩তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেছে ডেমোক্রেটিক পার্টি। দলটির ঢাকা মহানগর কমিটির উদ্যোগে শুক্রবার (১৭ মার্চ) দুপুরে রাজধানী ঢাকার ইস্টার্ন প্লাজায় কেক কেটে আলোচনা সভা এবং মোনাজাত হয়েছে।

এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডেমোক্রেটিক পার্টির কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক এস এম আশিক বিল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন স্বাধীনতার স্থপতি। তিনি দীর্ঘ ২৩ বছর পাকিস্তান শাষকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে রাজপথে লড়াই করেন। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪-এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে বিজয় লাভ করেন। তার জীবনে ১৩ বছরের বেশি সময় তিনি কারাগারে বন্দি ছিলেন। ১৯৬৬ সালে ৬ দফা ঘোষণা করেন তিনি। তার অন্যতম দাবি ছিল স্বায়ত্তশাসন। এ কারণে তাকে সামরিক শাসক আইয়ুবশাহী আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় গ্রেপ্তার করেন।

সভাপতির বক্তব্যে ডেমোক্রেটিক পার্টি ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক মো. তাজুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের আদর্শ। তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে যেতে হবে। বুকে ধারণ করতে হবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাঙলা গড়ার খাঁটি চেতনা। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে স্মার্ট করপোরেশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জাফর আলী বলেন, ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে স্মার্ট করপোরেশন সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। বঙ্গবন্ধুর জন্যই আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি।’

বাংলাদেশ ন্যাপ-এর ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনরাত কাজ করছেন। তিনিই বঙ্গবন্ধুর আসল উত্তরসূরি। আওয়ামী লীগের নেতা মো. তাজুল ইসলাম বলেন, সরকার আশা করে বর্তমান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখতে ডেমোক্রেটিক পার্টি অবদান রাখবে। নির্বাচন কমিশন নিশ্চয়ই এই দলকে নিবন্ধন দিবে। এ আলোচনা সভা সঞ্চালনা করেন ডেমোক্রেটিক পার্টি ঢাকা মহানগরের যুগ্ম আহ্বায়ক সরদার মো. শাহ্ আলম। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলার আহ্বায়ক আমেনা বেগম, কুড়িগ্রাম জেলার আহ্বায়ক মো. মকবুল হোসাইন, ঢাকা মহানগরের সদস্য তাইফুর রহমান রাহী ও মো. সেলিম মিয়া।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close