মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

  ২২ জানুয়ারি, ২০২৩

বিএনপিকে জনগণ ভোট দেবে না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিএনপিকে দেশের জনগণ ভোট দেবে না। এজন্য বিএনপি ভোটের কথা বলেন না বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। জেলা যুবলীগের আয়োজনে শনিবার শহরের খানবাহাদুর আওয়াদ হোসেন খান উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে শীতার্তদের কম্বল বিতরণের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির এসব কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপির শাসনামলে আমরা দেখেছি কৃষকের সার খেয়ে ফেলেছে, বিদ্যুৎ থেকে লুটপাট করেছে। বিদ্যুৎ তো লোকেরা পাই নাই। বিএনপির কথা দেশের মানুষ সব জানে। বিএনপি ভোট করতে চায় না, ভোটের কথা বলেন না। কারণ বিএনপি জানে দেশের জনগণ তাদের ভোট দেবে না। সেজন্য বিএনপি ভোটের আসার কথা বলে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বিএনপি শুধু ক্ষমতা চায়। বিএনপি ক্ষমতা নিয়ে কি করবে, সেটা তো বলেন না। বিএনপি ক্ষমতা নিয়ে মানুষকে মারবেন, না খাইয়ে রাখবেন, গ্রেনেড হামলা করেন। না কি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারবে, সেটা তো বলে না। না কি ক্ষমতা নিয়ে মানুষের ঘরবাড়ি, স্কুল-কলেজ, আরো ভাতার ব্যবস্থা করবে। এ ধরনের কোনো কথা তো বলেন না। কারণ বিএনপি দেশের উন্নয়নে কোনো কাজ করবে না।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশে দরিদ্র জনসংখ্যা অনেক। তাদের জন্য কম্বলের ব্যবস্থা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোটি কোটি দরিদ্র মানুষকে কম্বল দিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন সংগঠন আছে। তাদের মাধ্যমে দরিদ্র মানুষের জন্য কম্বলের ব্যবস্থা করেন। এছাড়াও সমাজের ধর্ণাঢ্য ব্যক্তিবর্গরাও এগিয়ে আসেন। দেশে শীতের সময় আসছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের কথা মনে রেখেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণকে অনেক ভালোবাসেন। আপনাদের কথা সব সময় মনে রাখেন। দেশের উন্নয়নে যত টাকা ব্যয় হয়, তার অর্ধেকের বেশি গ্রামাঞ্চলে ব্যয় হয়। আপনাদের বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ভিজিএফ ও ভিজিডিসহ অন্যান্য কাজে ব্যয় করা হয়।

ভ্যাকসিনের কথা উল্লেখ্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনাকালীন অনেক মানুষ আক্রান্ত হয়েছিল। তাদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া জনগণকে বিনামূল্যে করোনার টিকাও দেওয়া হয়েছে এবং সারা দেশের মানুষ টিকা পেয়েছে। টিকার জন্য প্রত্যেক ব্যক্তির পেছনে ১০-১৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। করোনার টিকার জন্য প্রধানমন্ত্রী আপনাদের পেছনে হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয় করেছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, সামনে নির্বাচন আসছে। আমাদের বিরোধীরা রাস্তাঘাটে মিছিল করে, ভাঙচুর করে, গাড়ি পোড়ায়, সাধারণ মানুষ ও পুলিশকে আহত করে। তারা (বিএনপি) বলে আমরা ক্ষমতায় যাব। তারা কীভাবে ক্ষমতায় যাবে? দেশে বিশৃঙ্খলা করে, আওয়ামী লীগকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে এবং আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়ে। কারণ বিএনপি ভোটে আসতে চায় না।

জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আবদুর রাজ্জাক রাজার সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মহীউদ্দীন, সহসভাপতি আবদুল মজিদ ফটো, পৌরসভার মেয়র মো. রমজান আলী ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহাবুবুর রহমান জনিসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close