ক্রীড়া ডেস্ক

  ০৭ জুলাই, ২০২৪

ইতিহাস গড়ে সেমিতে আর্জেন্টিনার সামনে কানাডা

কোপা আমেরিকায় চমকের ধারাবাহিকতায় সেমিফাইনালে উঠে গেল কানাডা। টেক্সাসে গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিত রুদ্ধশ্বাস কোয়ার্টার ফাইনালে ভেনেজুয়েলাকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে পরাজিত করে ইতিহাস গড়ল তারা। নির্ধারিত সময়ে খেলা ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর টাইব্রেকারে হয় ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ। এ জয়ের ফলে ১০ জুলাই ভোর ৬টায় সেমিফাইনালে লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে জয়োল্লাসী কানাডা।

প্রথমবারের মতো কোপায় অংশ নিয়েই সেমিফাইনালে ওঠার গৌরব অর্জন করল কানাডা। ম্যাচের ১৩ মিনিটে জ্যাকব শ্যাফেলবার্গের গোলে এগিয়ে যায় তারা। দ্বিতীয়ার্ধের ৬৪ মিনিটে সালোমন রন্ডনের গোলে ভেনেজুয়েলা খেলায় ফিরলেও জয়ের দেখা পায়নি। গ্রুপ পর্বে আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে পরাজিত করেছিল কানাডাকে। কানাডার সামনে আবারও অগ্নিপরীক্ষা। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপজয়ী দলটি ফর্মের তুঙ্গেই রয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার কোয়ার্টার ফাইনালে ইকুয়েডরকে টাইব্রেকারে হারিয়ে শেষ চারে উঠেছে আর্জেন্টিনা।

এদিকে কানাডার জন্য যেন এক ধরনের চক্র পূরণ। যাদের বিপক্ষে হার দিয়ে এবারের কোপা আমেরিকা যাত্রা শুরু, ফাইনালে ওঠার পরীক্ষায় সামনে দাঁড়িয়ে সেই আর্জেন্টিনা। শিরোপাধারীদের বিদায় করে আরো এগিয়ে যেতে আত্মবিশ্বাসী কানাডা কোচ জেসি মার্শ। তিনি বলেন, প্রথম ম্যাচের ভুল শুধরে জিততে চান তারা। লাতিন আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতায় কোয়ার্টার ফাইনালে শনিবার সকালে ভেনেজুয়েলাকে হারায় কানাডা। ১-১ গোলে ড্র হওয়ার পর টাইব্রেকারে ৪-৩ ব্যবধানের জয় তুলে নিয়ে সেমিফাইনালে জায়গা করে নেয় দলটি। অথচ টুর্নামেন্টে কানাডার শুরুটা ছিল হতাশার। গ্রুপ পর্বে প্রথম লড়াইয়ে আর্জেন্টিনার কাছে ২-০ গোলে হারে তারা। এরপর পেরুকে ১-০ গোলে ও চিলির বিপখে গোলশূন্য ড্র করে শেষ আটের টিকিট নিশ্চিত করে তারা গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে।

কোপা আমেরিকার প্রস্তুতিও আদর্শ ছিল না কানাডার। টুর্নামেন্টের মাসখানেক আগে তারা কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় মার্শকে। তার কোচিংয়ে আগের পাঁচ ম্যাচে জয় ছিল মাত্র দুটি। মার্শের দায়িত্বের প্রথম ম্যাচেই নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৪-০ গোলে উড়ে যায় কানাডা। সেটাও কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার বিপক্ষে মাঠে নামার মাত্র ১৫ দিন আগে। মাসখানেক সময়ের মধ্যে দল সম্পর্কে কতটা জেনেছেন, সেমিফাইনালে ওঠার পর প্রশ্ন করা হয় মার্শকে। উত্তরে তিনি বলেন, এই দলের শেখার তাড়না তার বেশ ভালো লেগেছে। এখন তাদের সম্পর্কে যা কিছু জানি, আমি অনুভব করেছি; তাদের প্রতিশ্রুতি, তাদের আকাঙ্ক্ষা, তাদের শেখার ইচ্ছা। এসব কিছু প্রচুর আস্থা এবং আত্মবিশ্বাসের দিকে পরিচালিত করেছে।’ আর্জেন্টিনা ম্যাচ নিয়ে নিজেদের প্রস্তুত থাকার কথা বললেন মার্শ। কোপা আমেরিকার শিরোপাধারীদের বিপক্ষে খেলা আগের ম্যাচ থেকে শিক্ষা নিতে চান তিনি। বলেন, ভয়ে কোণঠাসা না হয়ে থেকে তারাও লড়বেন চোখে চোখ রেখে।

‘আমার উন্নতিতে কোথায় আছি, তা নিয়ে রোমাঞ্চিত এবং আমরা আরেকটি চেষ্টা চালানোর (আর্জেন্টিনার বিপক্ষে) সুযোগ পেয়েছি এবং আমরা এ ম্যাচে সেভাবে প্রাধান্য দেব। আমরা ইতিবাচক থাকব। আক্রমণাত্মক থাকব। আমরা জড়োসড়ো হয়ে শুধু রক্ষণ সামলানোর চেষ্টা করব না। আমরা যেভাবে খেলে এসেছি, সেভাবে খেলার চেষ্টা করব এবং তারপর দেখব এটা (জয়ের ধারা) ধরে রাখতে পারে কি না।’ আগামী বুধবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় নিউজার্সিতে প্রথম সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে লড়বে কানাডা।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close