এম কবির, টাঙ্গাইল

  ০২ অক্টোবর, ২০২২

টাঙ্গাইলে সংবর্ধিত হলেন কৃষ্ণা-ছোটন

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয়ী বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দলের স্ট্রাইকার কৃষ্ণা রাণী সরকার ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে সংবর্ধনা দিয়েছে টাঙ্গাইল জেলা ক্রীড়া সংস্থা। শনিবার (০১ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে এ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান ফারুক।

জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ড. আতাউল গনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আশরাফুজ্জামান স্মৃতি প্রমুখ।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মির্জা মইনুল হোসেন লিন্টুর অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি হারুন অর রশিদ, যুগ্ম সম্পাদক মাতিনুজ্জামান সুখন, ইফতেখারুল অনুপম, কৃষ্ণার বাবা বাসুদেব সরকার, ছোট ভাই পলাশ সরকারসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে কৃষ্ণা রাণী সরকারকে এক লাখ ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে পঞ্চাশ হাজার টাকাসহ ক্রেস্ট দেওয়া হয়।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান ফারুক ব্যক্তিগতভাবে কৃষ্ণা রাণী সরকার ও কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটনকে স্বর্ণের চেন উপহার দেন। এছাড়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কৃষ্ণাকে এক লাখ, ছোটনকে পঞ্চাশ হাজার, পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে কৃষ্ণাকে এক লাখ ও ছোটনকে পঞ্চাশ হাজার, টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্যের পক্ষ থেকে দুই জনকে পঁচিশ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে।

অপরদিকে জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থা, সদর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থাসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে সংবর্ধিতদের ক্রেস্ট দেওয়া হয়। ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে সংবর্ধিতদের পরিবারের সদস্যসহ কৃষ্ণার স্কুল কোচ ও গোপালপুর সূতী ভিএম পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক গোলাম রায়হান বাপনকেও উপহার দেয়া হয়েছে।

এ সময় কৃষ্ণা রানী সরকার বলেন, পৃথিবীর আলো দেখার পর কখনোই সুখের মুখ দেখিনি। যেদিন থেকে বুঝতে শিখেছি, সেদিন থেকেই বাবাকে কষ্ট করতে দেখেছি। মা অনেক কষ্ট করেছে। এই প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে অনেক প্রতিকুলতার মধ্যে দিয়ে ফুটবল খেলতে হয়েছে। সব বাঁধা বিপত্তি অতিক্রম করে আজ এখানে আসতে পেরেছি। আমার এই সাফল্য কোচ ও শিক্ষকদের সহযোগিতার জন্য হয়েছে। আরো ভাল পরিসরে খেলে দেশের জন্য ভাল কিছু উপহার দিতে পারি সেজন্য সকলের দোয়া চাই।

চ্যাম্পিয়ন দলের কোচ গোলাম রাব্বানী ছোটন বলেন, সাফ জয় করে দেশে ফেরার পর থেকে নারী দল ভাসছে পুরস্কার ও সংবর্ধনায়। দলের ফুটবলারদের জন্য এটি অনুপ্রেরণার মনে করি। এই সাফল্যকে শক্তিতে পরিণত করে এই দল আগামীতে আরও ভাল ফল করার অনুপ্রেরণা পাবে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close