ক্রীড়া ডেস্ক

  ১৫ অক্টোবর, ২০২১

মুখোমুখি কলকাতা-চেন্নাই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ফাইনালে আজ চেন্নাইয়ের মুখোমুখি হবে সাকিবের কলকাতা। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায়। এর আগে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ৩ উইকেটের জয়ে তৃতীয়বার আইপিএলের ফাইনালে উঠেছে সাকিবের কলকাতা। আজ চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ফাইনালে কলকাতার জন্য সবচেয়ে বড় ‘টনিক’ হতে পারে তাদের ইতিহাসে। ফাইনালে যে কখনোই হারেনি তারা!

কলকাতা ফাইনালে না হারলেও সাকিব অবশ্য হেরেছেন একবার। ২০১৮ মৌসুমে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খেলা সাকিব ফাইনালে হেরেছিলেন চেন্নাইয়ের কাছেই। সব মিলিয়ে আইপিএলের এটি সাকিবের চতুর্থ ফাইনাল। এবার বাংলাদেশি তারকার সামনে আবারও কলকাতার জার্সিতে ২০১২ ও ২০১৪ সালের স্মৃতি ফিরিয়ে আনার সুযোগ। গতকাল ফাইনাল নিশ্চিতের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়েছেন সাকিবপত্নী উম্মে আহমেদ শিশির। তিনি লিখেছেন, ‘ফাইনাল! ২০১২ ও ২০১৪ মৌসুমের পুনরাবৃত্তি।’ এ কথার পর আবার চিন্তার ‘ইমোজি’ দিয়ে শিশির হয়তো বোঝাতে চেয়েছেন ফাইনালে যেকোনো কিছুই হতে পারে।

২০০৮ সালে শুরু হওয়া আইপিএলে কলকাতা প্রথমবার ফাইনালে উঠে ২০১২ মৌসুমে। ফাইনালে শেষ ওভারে গড়ানো ম্যাচে চেন্নাইকে ৫ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল শাহরুখ খানের দল। দলকে শিরোপা জেতাতে সে ম্যাচে ব্যাটে-বলে দারুণ অবদান রেখেছিলেন সাকিব। এক মৌসুম পর ২০১৪ সালেও আইপিএলের ফাইনালে উঠে কলকাতা। প্রতিপক্ষ ছিল পাঞ্জাব কিংস। এবারও কলকাতার জয় রান তাড়া করে। এ ম্যাচও গড়িয়েছিল শেষ ওভারে। পাঞ্জাবের দেওয়া ২০০ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কলকাতা জিতেছিল ৩ উইকেটে।

৭ মৌসুম পর আবারও ফাইনালে কলকাতা। পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে থেকে রাউন্ড রবিন পর্ব শেষ করা দলটিকে ফাইনাল খেলতে হলে জিততে হতো এলিমিনেটর ও কোয়ালিফায়ার দুটিতেই।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close