ক্রীড়া ডেস্ক

  ১২ অক্টোবর, ২০২১

শিরোপার হাসি ফ্রান্সের

সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের বিপক্ষে প্রথমার্ধে দুই গোলে পিছিয়ে পড়েও ৩-২ গোলের দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছিল ফ্রান্স। ফাইনালে আরো এক প্রস্থ প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে বসল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তাতে কপাল পুড়ল স্পেনের। তাদের ২-১ গোলে হারিয়ে এবার ফ্রান্স জিতে গেল প্রথম উয়েফা নেশনস লিগের শিরোপা। ম্যাচের শুরু থেকে বলের দখলে ছড়ি ঘুরিয়েছে স্পেন। আর ফ্রান্স খেলেছে প্রতি আক্রমণের কৌশলে। যদিও দুই দলের আক্রমণই ভোঁতা ছিল এদিন। ১২ মিনিটে পাবলো সারাবিয়ার শট ঠেকান হুগো লরিস। ২৬ মিনিটে অ্যাতোয়ান গ্রিজম্যানের সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে করিম বেনজেমা শট নিয়েছিলেন বটে, কিন্তু তার চেষ্টা রুখে দেন এরিক গার্সিয়া। বিরতির মিনিট দশেক আগে মার্কোস আলনসোর ফ্রি কিক বেরিয়ে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে। বিরতির আগে সাকুল্যে এ তিনটি শটই নিতে পেরেছে দুই দল মিলে। ফলে গোলের দেখা আর মেলেনি প্রথমার্ধে। প্রথম ৪৫ মিনিটে ম্যাড়মেড়ে ফুটবল খেলা দুই দলই দ্বিতীয়ার্ধে নামে নতুন উদ্যমে। শুরুর ২০ মিনিটেই গোলের সুযোগ সৃষ্টি হয় কমপক্ষে চারটি। যার শেষটায় সফলতার মুখ দেখে স্পেন। সার্জিও বুসকেটসের বাড়ানো বল থেকে গোলটি করেন মিকেল ওইয়েরজাবাল। পরের মিনিটেই জবাব আসে ফ্রান্সের পক্ষ থেকে। বক্সের বাম প্রান্ত থেকে দারুণ এক বাঁকানো শট করেন বেনজেমা। গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে তা জড়ায় জালে।

৮০ মিনিটে জয়সূচক গোলের দেখা পায় ফ্রান্স। তাতে সৌভাগ্যের ছোঁয়াও ছিল বৈকি। থিও হার্নান্দেজ যখন বাড়াচ্ছেন, এমবাপ্পে ছিলেন অফসাইডে। কিন্তু বলটা পিএসজি তারকা পর্যন্ত পৌঁছাতে পৌঁছাতে ছুঁয়ে যায় এরিক গার্সিয়ার পা, ফলে অফসাইড হয়নি সে পাসটা। দারুণ এক ফিনিশিংয়ে গোল পান এমবাপ্পে। ফ্রান্সের জয়টা অবশ্য তখনই নিশ্চিত হয়নি। ৮৮ মিনিট আর যোগ করা সময়ে স্পেনের দুটি চেষ্টা রুখে দিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে তোলেন লরিস। তাতে ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে বিশ্বকাপ, ইউরো ও উয়েফা নেশনস লিগের শিরোপা জেতার কীর্তি গড়ে ফেলে ফ্রান্স।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close