ক্রীড়া ডেস্ক

  ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আমি ছুটি কাটাতে আসিনি

অধিকাংশ অ্যাথলেট যে সময়ে ক্যারিয়ারের ইতি টানার কথা ভাবেন সেই বয়সে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বেছে নিয়েছেন নতুন চ্যালেঞ্জ। প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে আবারও শীর্ষে তোলার বড় শিরোপা জেতানোর। আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়ার পর চেনা আঙিনায় অনুশীলনে ফিরে আবারও পর্তুগিজ তারকা বললেন, আয়েসে দিন কাটাতে আসেননি তিনি।

চমক জাগিয়ে গ্রীষ্মকালীন দলবদলের শেষ সপ্তাহে ইউনাইটেডে ফেরেন রোনালদো। যেখান থেকে শুরু হয়েছিল তার সেরাদের সেরা হওয়ার পথচলা। পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলারের বিশ্বাস, তার দলের সামর্থ্য রয়েছে বড় কিছু অর্জনের।

সময়ের সেরা খেলোয়াড়দের একজনকে পেয়ে দলটির সমর্থকরা আশা করছেন, আবারও সোনালি সময় ফিরে পাওয়ার। সাবেক কোচ স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের বিদায়ের পর থেকে ইউনাইটেড জিতেছে কেবল একটি করে ইউরোপা লিগ, এফএ কাপ, লিগ কাপ ও কমিউনিটি শিল্ড। সর্বশেষ লিগ জয়টিও এসেছিল ফার্গুসনের শেষ মৌসুমে, ২০১২-১৩ তে। আর চ্যাম্পিয়নস লিগে সর্বশেষ শিরোপা ধরা দিয়েছিল ২০০৮ সালে, রোনালদোর হাত ধরেই।

ক্লাবের ওয়েবসাইটে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রোনালদো জানালেন, ক্লাবের সুদিন ফিরিয়ে আনার চ্যালেঞ্জ নিয়েই তার ফেরা।

‘এই কারণেই আমি এখানে, ছুটি কাটাতে আসিনি। আগের সময়টা ভালো ছিল, গুরুত্বপূর্ণ শিরোপা জিতেছিলাম। অনেক বছর আগে আমি এই জার্সি পরতাম।’

‘আমি এখানে আবারও জিততে এসেছি। আমার সেই সামর্থ্য আছে, আমার সতীর্থদেরও। আমি চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত। এটা আমার জন্য এবং সমর্থক ও ক্লাবের জন্য এক ধাপ এগিয়ে যাওয়ার ভালো সুযোগ।’

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ২০০৩-০৯ পর্যন্ত ছয় মৌসুমে তিনটি প্রিমিয়ার লিগ ও একটি চ্যাম্পিয়নস লিগসহ আটটি মেজর শিরোপা জিতেছিলেন রোনালদো। তার বিশ্বাস, আগামী বছরগুলোতে দলটির হয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারবেন তিনি।‘আমি মনে করি, আগামী তিন বা চার বছরে দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারব।’ প্রথম মেয়াদে ইউনাইটেডের হয়ে ২৯২ ম্যাচে ১১৮ গোল করেছিলেন রোনালদো। নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে আজ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে দ্বিতীয় মেয়াদে অভিষেক হতে পারে তার।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close