ক্রীড়া ডেস্ক

  ০৯ মে, ২০২১

শাস্তির মুখে রিয়াল, বার্সা ও জুভেন্টাস

আলোর মুখ না দেখা ইউরোপিয়ান সুপার লিগ (ইউএসএল) থেকে নাম প্রত্যাহার না করায় শাস্তি পেতে যাচ্ছে তিন বড় ফুটবল ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস। নাম প্রত্যাহার করে বেরিয়ে আসা বাকি ৯ ক্লাব উয়েফার সঙ্গে একটি অঙ্গীকারনামায় সই করেছে। পরশু রাতে উয়েফা এক বিবৃতিতে ৯ ক্লাবের সঙ্গে তাদের চুক্তির কথা জানিয়েছে।

এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, ম্যানচেস্টার সিটি, চেলসি, টটেনহাম হটস্পার ও আর্সেনাল, ইতালির এসি মিলান ও ইন্টার মিলান এবং স্পেনের অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

------
গত ১৮ এপ্রিল ফুটবল বিশ্বকে কাঁপিয়ে বিদ্রোহী সুপার লিগে যোগ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল ইউরোপের ১২ শীর্ষ ক্লাব। এরপর সমর্থকদের তুমুল সমালোচনা ও প্রতিবাদের মুখে একে একে ৯ ক্লাব সরে আসে এই সিদ্ধান্ত থেকে। এই লিগে থাকলে চরম শাস্তির হুমকিও দেয় উয়েফা। কিন্তু তিন ক্লাব এখনো নাম প্রত্যাহার করেনি। বরং রিয়াল প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ সুপার লিগের পক্ষেই কথা বলা যাচ্ছেন। পরশু রাতে এক বিবৃতিতে উয়েফা প্রধান আলেক্সান্দার সেফেরিন জানান, ৯ ক্লাব অঙ্গীকারনামায় সই করেছে। সময়ে পেরিয়ে যাওয়ায় বাকি তিন ক্লাবকে শাস্তি পেতে হবে, ‘ওই সুপার লিগ থেকে সরে আসার আহ্বান প্রত্যাখ্যানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সব রকমের অধিকার উয়েফার আছে।’

এদিকে সুপার লিগ থেকে সরে আসা ৯ ক্লাব বড় শাস্তি না পেলেও সামান্য পরিমাণ জরিমানা গুনতে হবে। নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে ফেরার সদিচ্ছার স্বরূপ সবাইকে মিলিতভাবে দেড় কোটি ইউরো অনুদান দিতে হবে। যা ইউরোপের শিশু, যুব ও তৃণমূল পর্যায়ের ফুটবলের উন্নয়নে ব্যবহার করা হবে। এ ছাড়াও চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগ থেকে এক মৌসুমে পাওয়া রাজস্বের ৫ শতাংশও তাদের দিতে হবে। একই সঙ্গে আগামীতে এই ধরনের বিদ্রোহী লিগে খেলতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলে ১০ কোটি ইউরো জরিমানা গুনতে হবে। আর অঙ্গীকার ভঙ্গ করলে মাশুল দিতে হবে পাঁচ কোটি ইউরো।

তবে বিদ্রোহী লিগের স্বপ্নে বিভোর রিয়াল-বার্সা-জুভেন্টাসের জন্য গুরুদ- অপেক্ষা করছে। তাদের চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হতে পারে।

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close