ক্রীড়া প্রতিবেদক

  ০৯ মে, ২০২১

ফিল্ডিং-দুর্বলতা কাটিয়ে ওঠার আশা

নিউজিল্যান্ড সফরে একটা ব্যাপারে বেশ ধারাবাহিক ছিল বাংলাদেশ। ব্যাটিং-বোলিং পারফরম্যান্সে ওঠানামা থাকলেও শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ফিল্ডিং ছিল বাজে। শ্রীলঙ্কার মাটিতে দুই টেস্টের সিরিজেও বাংলাদেশকে ভালোই ভুগিয়েছে ফিল্ডিং। দ্বিতীয় টেস্টে নাজমুল হোসেন শান্ত একাই ছেড়েছেন সহজ দুটি ক্যাচ। বাকিরাও এই ডিপার্টমেন্টে ছিলেন মলিন। ওই দুই সিরিজের পুনরাবৃত্তি সামনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে চায় না টাইগাররা। দেশের সেরা ফিল্ডারদের একজন হিসেবে বিবেচিত করা হয় যাকে, সেই আফিফ হোসেন ধ্রুব জানালেন, ফিল্ডিংয়ের ভুল এড়াতে এবার খুব ভালো প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।

গত মার্চ-এপ্রিলে নিউজিল্যান্ড সফরই ছিল রঙিন পোশাকে বাংলাদেশের সর্বশেষ সিরিজ। গোটা সিরিজে বাংলাদেশের ফিল্ডিং ছিল দৃষ্টিকটু। যেন ক্যাচ মিসের প্রতিযোগিতায় নেমেছিলেন ফিল্ডাররা। কঠিন সুযোগগুলো কাজে লাগানো তো বহুদূর, সহজ অনেক ক্যাচও নিতে পারেননি তারা। গ্রাউন্ড ফিল্ডিংও হয়নি মনমতো। এর চড়া মাশুল দিতে হয় দলকে।

------
সবার সঙ্গে সেখানে ফিল্ডিংয়ে ভুগতে দেখা গেছে আফিফকেও। তবে কাল অনুশীলন শেষে তরুণ এই ক্রিকেটার জানালেন, ভুলের সেই ধারা যেন আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজে না থাকে, সেজন্য অনেক ঘাম ঝরাচ্ছেন তারা, ‘নিউজিল্যান্ডে দল হিসেবে সব মিলিয়ে আমাদের ফিল্ডিং তেমন একটা ভালো হয়নি। তবে এবার আমরা খুব ভালোভাবে প্রস্তুতি নিচ্ছি। প্রত্যেক দিন অনুশীলন (ব্যাটিং-বোলিং) শেষে আমাদের ফিল্ডিং সেশন থাকছে। ওখানে চেষ্টা করছি যাতে ভালো কিছু শিখতে পারি এবং ম্যাচে যাতে একই রকমের ভুল আর না হয়।’

আগামী ২৩ মে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে। একই মাঠে পরের দুই ম্যাচ ২৫ ও ২৮ মে। সেই সিরিজের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন আফিফসহ প্রাথমিক দলে থাকা আরো কয়েকজন। লম্বা সময় ধরে অনুশীলনের সুযোগ পাওয়ায় প্রস্তুতি খুব ভালো হচ্ছে- এমনটাই জানালেন তিনি, ‘একটা সিরিজের আগে এরকম একটা লম্বা সময় ধরে আমরা অনুশীলন করতে পারছি। এটা অবশ্যই ইতিবাচক ব্যাপার। অবশ্যই এটা আমাদের খুব দরকার ছিল। এটা সিরিজের আগে আমাদের প্রস্তুতিতে খুব সাহায্য করছে।’

ছুটি কাটিয়ে আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। এখন পর্যন্ত দলে নেই কোনো চোট সমস্যা। পূর্ণ শক্তির দল পাওয়ায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে ভালো কিছুর ভরসা পাচ্ছেন আফিফ, ‘আমাদের যেহেতু পুরো দলকেই পাওয়া যাচ্ছে, সাকিব ভাই-মুস্তাফিজ ভাই থাকছে, এটা অবশ্যই আমাদের জন্য ইতিবাচক দিক যে, পুরো দলটাই খেলতে পারছে। আশা করি, আমরা এ সিরিজটা অনেক ভালোভাবে শেষ করব।’

ভারত-পাকিস্তানের মতো এশিয়ান পরাশক্তির বিপক্ষে ছয় বছর আগে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সে স্বাদ এখনো পাওয়া হয়নি বাংলাদেশ দলের। লঙ্কানদের বর্তমান ওয়ানডে দলটা আগের মতো ভয়ংকর নয়। তারওপর সিরিজ হবে ঘরের মাঠে চিরচেনা পরিবেশে। এবার তাই আক্ষেপ ঘোচাতে মরিয়া টাইগাররা।

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close