ইব্রাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে ভুল করেছে করোনা!

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

চোখ কপালে তুলে দেওয়া মন্তব্যের জন্য ব্যাপক পরিচিত জøাতান ইব্রাহিমোভিচ। নিজের মনোভাব প্রকাশে এসি মিলানের এই অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার বরাবরই দ্বিধাহীন। জীবনের কঠিন বিষয়গুলোকেও আর দশটা সাধারণ মানুষের চেয়ে ভিন্নভাবে দেখতে তার জুড়ি নেই। সে প্রমাণ মিলল আরো একবার। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার দুঃসংবাদটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নিজস্ব ঢংয়ে জানিয়েছেন ইব্রা।

গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্য অনুসারে, বিশ্বে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা সোয়া ৩ কোটির কাছাকাছি। মারা গেছেন ৯ লাখ ৮৮ হাজার ৪৯৮ জন। অনেক দেশে নতুন করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। কিন্তু আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর ইব্রা যেন পাত্তা দিচ্ছেন না এই বৈশ্বিক মহামারিকে!

৩৮ বছর বয়সি সুইডিশ ফরওয়ার্ড টুইট করেছেন, ‘গতকাল (পরশু) আমার কোভিড নেগেটিভ এসেছিল। আর আজ পজিটিভ এসেছে। অথচ উপসর্গের লেশমাত্র নেই। কোভিডের কত সাহস আমাকে চ্যালেঞ্জ করে। (করোনার) ভুল পরিকল্পনা।’

পরশু রাতে উয়েফা ইউরোপা লিগের বাছাই পর্বের ম্যাচে নরওয়ের চ্যাম্পিয়ন বোডো গ্লিমটের বিপক্ষে খেলছে ইব্রার দল এসি মিলান। তার আগে দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছেন তিনি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করার পাশাপাশি তাৎক্ষণিকভাবে তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে মিলান। তিনি ছাড়া দলটির অন্যান্য খেলোয়াড় ও স্টাফদের পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে। অবশ্য ইব্রাকে ছাড়াই ম্যাচটা এসি মিলান জিতে নিয়েছে ৩-২ গোলে।

যুক্তরাষ্ট্রের মেজর সকার লিগ সকার (এমএলএস) থেকে গত মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে মিলানে যোগ দেওয়ার পর থেকে দুর্দান্ত ছন্দে আছেন ইব্রাহিমোভিচ। তার উপস্থিতিতে দলটিও আমূল বদলে গেছে। মৌসুমের শেষ ১২ ম্যাচে অপরাজিত ছিল তারা। ৯টিতে জয় ও ৩টিতে ড্র করে তারা জায়গা করে নেয় ইউরোপা লিগেও। আর মিলানের ঘুরে দাঁড়ানোয় মূল ভূমিকা রাখেন ১০ গোল করা ইব্রা।

নতুন মৌসুমেও ভাটা পড়েনি ছন্দে। গত সপ্তাহে ইব্রার জোড়া গোলেই সিরি ‘আ’তে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বোলোনিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছে মিলান। হতে পারত হ্যাটট্রিকও।

ওই ম্যাচ শেষে সাংবাদিকরা তার বয়স বিবেচনায় পারফরম্যানস মূল্যায়ন করতে বললে চমৎকার উপমা ব্যবহার করেন ইব্রা। ‘দ্য কিউরিয়াস কেস অব বেঞ্জামিন বাটন’- এর গল্পটা কম-বেশি সবাই জানেন। হলিউডের চলচ্চিত্রটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করা ব্র্যাড পিটের ক্ষেত্রে ঘড়ির কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরতে থাকে। দিনে দিনে বয়স কমতে থাকে তার। নিজেকে বেঞ্জামিন বাটন দাবি করে ইব্রা বলেছিলেন, ‘আমি বেঞ্জামিন বাটনের মতো। বুড়ো হয়ে জন্মেছি, তরুণ হয়ে মরব।’

 

 

"