টাইগারদের লঙ্কা যাত্রা পেছাচ্ছে

‘আমরা আমাদের যাত্রার তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ধরেই এগোচ্ছিলাম। কিন্তু ভিসা ও অন্যান্য জটিলতায় ওই দিন ভ্রমণ করা চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে’ -নিজামউদ্দিন চৌধুরী, বিসিবির প্রধান নির্বাহী

প্রকাশ : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাতে গড়িমসি করছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। এদিকে এগিয়ে আসছে সফরে যাওয়ার দিন। সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা না কাটলেও আগামী রোববার যে যাওয়া হচ্ছে না, তা অনেকটাই নিশ্চিত। মোটকথা, নির্ধারিত দিনে লঙ্কাগামী উড়োজাহাজে টাইগারদের চড়ানোর আশা প্রায় ছেড়েই দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, শ্রীলঙ্কার দেওয়া কঠিন শর্ত মেনে সফরে যাবে না বাংলাদেশ। এরপর নয় দিন পার হয়ে গেলেও মেটেনি জটিলতা। ফিকে হয়ে আসছে সিরিজের সম্ভাবনাও।

গতকাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানালেন, সুনির্দিষ্ট করে নিজেদের চাওয়া শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডকে জানিয়ে জবাবের জন্য অপেক্ষা করছেন তারা, ‘লঙ্কান বোর্ড যেটা বলেছে, তাদের যে কোভিড টাস্কফোর্স বা অন্যান্য যে অথোরিটি আছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে তাদের হেলথ গাইডলাইন কতটুকু শিথিল করা যায়, সেটা নিয়ে কাজ করছেন। আমরা আমাদের যাত্রার তারিখ ২৭ সেপ্টেম্বর ধরেই এগোচ্ছিলাম। তবে এই মুহূর্তে মনে হচ্ছে, ২৭ তারিখ ভ্রমণ করা চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভিসা এবং অন্যান্য জটিলতা তো রয়েছেই, সে ক্ষেত্রে যদি কোনো অ্যাডজাস্টমেন্টের দরকার হয়, আমরা করে নেব।’

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ধীরে ধীরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ফিরছে ক্রিকেট। সেসব দেশের সঙ্গে শ্রীলঙ্কার দেওয়া শর্ত কতটা আলাদা, সেই তুলনায় এ মুহূর্তে যেতে চাইলেন না বোর্ডের প্রধান নির্বাহী, ‘সুনির্দিষ্ট করে এ মুহূর্তে আমি কিছু বলতে পারছি না। তবে আমাদের জন্য যেটা সহনীয় পর্যায়ের, সেটা আমরা চাচ্ছি। সে বিষয়গুলো আমরা তাদের এরই মধ্যে জানিয়ে দিয়েছি। আর যেহেতু এ নিয়ে শ্রীলঙ্কা বোর্ডও কিছু বলছে না, তাই এগুলো এখন আমাদের মধ্যেই থাক। জনসম্মুখে কিছু বলতে চাচ্ছি না।’

তিনি আরো বলেন, ‘যদি যাওয়ার তারিখ পেছাতে হয়, সেটা আমরা করব এবং সে ব্যাপারে আমাদের প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে আমরা চাই এসএলসি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের ফিডব্যাকটা দিক। সে অনুযায়ী আমরা পরিকল্পনা করতে পারব।’

 

 

"