জীবনযাপন ডেস্ক

  ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১

দূষণের মধ্যেও ত্বক ভালো রাখতে যা করবেন

আমাদের দেশের জলবায়ু অনুযায়ী, শীতকাল শুরু হলেই দূষণের মাত্রা বাড়ে অল্প অল্প করে, কিছুটা হয়তো চোখের আড়ালেই। এর সরাসরি এবং সবচেয়ে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে মানুষের ত্বকের ওপর। কারণ এ সময় হাত, পা আর ঠোঁট ফাটা নিয়ে যতটা আমরা উদ্বিগ্ন হই, ত্বকের সামগ্রিক পরিচর্যা নিয়ে ততটা নয়। ফলে ত্বকের ওপর লোমকূপের ওপর ময়লা জমে গিয়ে দাগ, ব্রণ, বলিরেখা ইত্যাদি তৈরি হয়। তা ছাড়া ত্বকের ওপর দূষণজনিত জমা এই ময়লা ত্বকে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন পৌঁছাতে দেয় না, ফলে ত্বকের প্রাকৃতিক ঔজ্জ্বল্য হ্রাস পেতে থাকে।

দিনের পর দিন এই প্রক্রিয়া চলতে থাকলে শরীর বিশেষ করে মুখে ছাপ পড়ে যায় অকালবার্ধক্যের। এই সম্ভাবনা রোধ করতে ত্বক বিশেষজ্ঞরা কিছু উপায় বাতলে স্বস্তি দিয়েছেন আমাদের।

* পানি পান করুন। পানি শরীরের অতিরিক্ত টক্সিন বের করে দেয় এবং ত্বকের ক্লান্তি কাটিয়ে সতেজতা ফিরিয়ে আনে। শীতে পানি পানের মাত্রা অনেকটাই কমে আসে। সেদিকে বিশেষ নজর রেখে পানি পান করলে ত্বকের স্বাস্থ্য থাকবে ভালো।

* ঘুমানোর আগে ত্বকে লাগানো সব প্রসাধনী তুলতে ভুলবেন না। শীত মানেই উৎসবের মৌসুম। সেজেগুজে তা উপভোগ করে অনেক সময়েই আমরা ত্বকের ওপর লাগানো মেকআপ না তুলেই ঘুমিয়ে পড়ি। ফলে পর্যাপ্ত অক্সিজেন পেতে পারে না আমাদের শরীরের সবচেয়ে ওপরের দিকের অংশটি। ঘুমানোর আগে তাই একটু সময় নিয়ে সব প্রসাধনী তুলে তবেই শোয়া প্রয়োজন।

* দিনে অন্তত দুবার মুখ ধোয়ার সাবান দিয়ে প্রতিদিনই মুখ ধোয়া প্রয়োজন। যাতে সারা দিনের ধুলো, ধোঁয়া, ময়লা বেরিয়ে গিয়ে মুখের ওপর কোনো তৈলাক্ত আবরণ জমে থাকতে না পারে। একই সঙ্গে সপ্তাহে অন্তত দুবার ব্যবহার করুন প্রাকৃতিক কোনো এক্সফোলিয়েটর, যাতে লোমকূপের ময়লাও ত্বকে বাসা না বাঁধতে পারে।

* ব্যবহার করুন অ্যালোভেরা। প্রাকৃতিকভাবে অ্যালোভেরাগাছের পাতার শাঁস দু-তিন দিন অন্তর মুখের ত্বকে এবং চুলে লাগালে ত্বকের সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্যবান থাকবে চুলও। গাছের পাতা না মিললে ব্যবহার করতে পারেন কোনো সংস্থার রাসায়নিক মুক্ত অ্যালোভেরা জেলও। শীতকালের ত্বক পরিচর্যায় এর জুড়ি মেলা ভার।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close