রাজশাহী ব্যুরো

  ১৭ আগস্ট, ২০২২

চাঁদাবাজির সময় পুলিশ কনস্টেবলকে গণপিটুনি

রাজশাহী মহানগরীতে চাঁদাবাজির সময় মিজানুর রহমান নামে পুলিশের এক কনস্টেবলকে হাতেনাতে ধরে গণপিটুনি দিয়ে থানায় সোপর্দ করেছেন এলাকাবাসী। সোমবার (১৫ আগস্ট) রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত মিজানুর মহানগরীর বায়া পুলিশ ফাঁড়িতে কর্মরত।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে এ ঘটনা প্রসঙ্গে মহানগরীর ১১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম তজু জানান, হেতেম খাঁ সবজিপাড়ার একটি ছাত্রাবাসের এক ছাত্রকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে গত রবিবার (১৪ আগস্ট) ৬ হাজার টাকা আদায় করেন কনস্টেবল মিজানুর। এ সময় তিনি ওই ছাত্রের কাছ থেকে সোমবারের (১৫ আগস্ট) মধ্যে আরো ১০ হাজার টাকা দাবি করে চলে যান। এরপর সোমবার রাতে হেতেম খাঁ সবজিপাড়ায় অবস্থিত ১১ নম্বর ওয়ার্ড কার্যালয়ের সামনে কনস্টেবল মিজানুর রহমান সেই ১০ হাজার টাকা চাঁদা নিতে এলে এলাকাবাসী তাকে হাতেনাতে ধরে গণপিটুনি দেন। বিষয়টি জানতে পেরে কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম ক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর কাছ থেকে সিভিল পোশাকে থাকা কনস্টেবলকে উদ্ধার করে বোয়ালিয়া থানায় সোপর্দ করেন।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) দুপুর পর্যন্ত অভিযুক্ত কনস্টেবল বোয়ালিয়া থানা পুলিশের হেফাজতেই ছিলেন। এ ঘটনায় থানার ওসি মাজহারুল ইসলামসহ বোয়ালিয়া জোনের ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছ থেকেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে অভিযুক্ত পুলিশ কনস্টেবলের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশের একটি সূত্র।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close