প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ৩০ জুন, ২০২২

কলম্বিয়ায় কারাগারে দাঙ্গা, নিহত ৫১

কলম্বিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একটি কারাগারে দাঙ্গার সময় আগুন লেগে কমপক্ষে ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৮ জন মানুষ। মঙ্গলবার (২৮ জুন) প্রথম প্রহরে টুলুয়া কারগারে কয়েদিদের মধ্যে দাঙ্গার সূত্রপাত হয় বলে কারা কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে জানায় বিবিসি। কারারক্ষীরা যাতে বাধা দিতে না পারে সেজন্য কয়েদিরা এক পর্যায়ে ম্যাট্রেসে আগুন লাগিয়ে দেয়। এরপর সেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

কলম্বিয়ার কারা কর্তৃপক্ষের প্রধান জেনারেল টিটো কাস্তেলানোস বলেছেন, কারাগারের ভেতর ৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ছাড়া হাসপাতালে নেওয়ার পর সেখানে আরো দুজনের মৃত্যু হয়। কারাগারের যে ওয়ার্ডে আগুন লাগানো হয়েছিল, সেখানে ১৮০ জন কয়েদি ছিলেন। এ ঘটনার সুযোগে কেউ পালাতে পারেনি।

টুলুয়া শহরের বাসিন্দারা জানান, রাত ১টার দিকে তারা কারাগারের ভেতরে আগুনের শিখা দেখতে পান। সেখানে ধোঁয়া উঠতে দেখা যাচ্ছিল অনেক দূর থেকেও। আগুন লাগার পরপরই ফায়ার সার্ভিস তৎপর হয়, বেশ কিছু অ্যাম্বুলেন্সে করে আহতদের সরিয়ে নিতে দেখা যায়।

টিটো কাস্তেলানোস বলেন, কিছু কয়েদি ম্যাট্রেসে আগুন দেওয়ায় ওই ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়, এটা যে তাদেরই বিপদে ফেলবে, সেটা তারা বিবেচনা করেনি।

তিনি বলেন, ওই আগুন পরে পুরো ব্লকে ছড়িয়ে পড়লে কারারক্ষী এবং অন্য কয়েদিরা নির্বাপক ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন এবং অধিকাংশ বন্দিকে সরিয়ে নিতে সক্ষম হন। তারপরও ৫১ জন নিহত এবং ২৮ জন আহত হয়েছেন।

পর্তুগাল সফরে থাকা কলম্বিয়ার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ইভান দুকে এই প্রাণহানির ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। কীভাবে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি হলো তা খুঁজে বের করতে তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি আরো জানায়, লাতিন আমেরিকার বেশিরভাগ দেশের মতো কলম্বিয়ার কারাগারগুলোতেও ধারণক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি বন্দি রাখা হয়। সারা দেশে ১৩২টি কারাগারের ধারণক্ষমতা যেখানে ৮০ হাজার, সেখানে বন্দি আছেন ১ লাখ ১২ হাজারের বেশি মানুষ।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close