নিজস্ব প্রতিবেদক

  ২৯ জুন, ২০২২

শনাক্ত দুই হাজারের বেশি মৃত্যু ৩

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ আবার বাড়ার মধ্যে টানা দ্বিতীয় দিন দুই হাজারের বেশি কোভিড রোগী শনাক্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় (সোমবার সকাল থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত) ২ হাজার ৮৭ জনের শরীরে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ২ হাজার ১০১। নতুন রোগীদের নিয়ে শনাক্ত রোগী বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৬৯ হাজার ২৬১ জন। আর তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৯ হাজার ১৪৫ জনে। গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের দাপট কমলে ফেব্রুয়ারির শেষদিকে দৈনিক শনাক্ত রোগী হাজারের নিচে নেমে এসেছিল। ধারাবাহিকভাবে কমতে কমতে একপর্যায়ে ২৬ মার্চ তা একশর নিচে নেমে আসে। গত ৫ মে দৈনিক শনাক্ত রোগী নেমেছিল চারজনে। শনাক্তের হার ১ শতাংশের নিচে ছিল বেশ কয়েক দিন। তবে গত ২২ মের পর থেকে শনাক্ত রোগী আবার বাড়ছে। ১১ সপ্তাহ পর দৈনিক শনাক্ত কোভিড রোগী ১২ জুন ১০০ ছাড়িয়ে যায়। ১৫ দিনের মাথায় সোমবার তা ২ হাজারের ঘরও ছাড়ায়। এরমধ্য দিয়ে দেশে মহামারির চতুর্থ ঢেউয়ে ঢুকেছে বলে মত দেশের শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসক অধ্যাপক এ বি এম আবদুুল্লাহর। তিনি পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবাইকে মাস্ক পরার পরামর্শ দিয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছে ২০০ জন কোভিড রোগী। তাদের নিয়ে ১৯ লাখ ৭ হাজার ৬৭ জন সেরে উঠল। এ সময় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ১৮৪টি, অ্যান্টিজেন টেস্টসহ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৪৮৯টি। এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৪৩ লাখ ১৯ হাজার ৩৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

অধিদপ্তর আরো জানায়, ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৪৭ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং মৃত্যুহার ১ দশমিক ৪৮ শতাংশ। আর মারা যাওয়া তিনজনের মধ্যে পুরুষ একজন এবং নারী দুজন। বয়স বিবেচনায় তাদের মধ্যে ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে একজন এবং ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন আছেন। তাদের মধ্যে একজন ঢাকার, দুজন চট্টগ্রামে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close