শরীয়তপুর প্রতিনিধি

  ২৮ মে, ২০২২

দুদেশের আদালতেই বিচার হবে পি কের

অর্থ পাচারের সঙ্গে জড়িত থাকায় ভারত ও বাংলাদেশের আদালতে প্রশান্ত কুমার হালদারের (পি কে হালদার) বিচার হবে বলে জানিয়েছেন দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান। ভারতে গ্রেপ্তার হওয়া পি কে হালদারকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সর্বাত্মক কার্যক্রম চালানো হচ্ছে বলেও জানান দুর্নীতি দমন কমিশনের এ কর্মকর্তা। মাদারীপুর সদর উপজেলার পাঁচখোলা এলাকায় গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে মোজাম্মেল হক খান কলেজে দুর্নীতিবিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। দুদক কমিশনার বলেন, পি কে হালদার বাংলাদেশের নাগরিক, দেশের অর্থ পাচারের সঙ্গে জড়িত। তার সহযোগীদের নামেও ৩৫টি মামলা হয়েছে। তারা অর্থ পাচারের বিষয়টি স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। পি কে হালদারকে দেশে এনে আদালতের মাধ্যমে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারলে আরও অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে। এসব তথ্য মামলা নিষ্পত্তি করতে সহায়তা করবে।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া দুদকের মূল কাজ উল্লেখ করে মোজাম্মেল হক বলেন, অর্থ পাচারের অভিযোগ এলেই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের নামের তালিকা করা হচ্ছে। তালিকা ও তথ্য আপডেট করা হচ্ছে প্রতি মুহূর্তে। একই সঙ্গে পাচারের টাকা ফিরিয়ে আনতে ও পালিয়ে যাওয়া অপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে আনতে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দুদকের মহাপরিচালক এ কে এম সোহেল, ঢাকা বিভাগের পরিচালক আক্তার হোসেন, ন্যাশনাল ডিবেট ফেডারেশনের চেয়ারম্যান এ কে এম শোয়েব, মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, মাদারীপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শ্রীনিবাস, দুদকের মাদারীপুরের উপপরিচালক আতিকুর রহমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাইন উদ্দিনসহ অনেকে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close