নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১২ জানুয়ারি, ২০২২

শনিবার থেকে ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী

নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় সরকারের নতুন বিধিনিষেধ মেনে আগামী শনিবার থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে ট্রেন। গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ রেলওয়ে জানায়, ২৫ শতাংশ টিকিট মোবাইল অ্যাপ বা অনলাইনে এবং ২৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টারে বিক্রি করা হবে। পাশাপাশি আন্তঃনগর ট্রেনের স্ট্যান্ডিং টিকিট ও স্টেশনের প্ল্যাটফরম টিকিট ইস্যু বন্ধ থাকবে। রেলের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার সাহাদাত আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

করোনাভাইরাসের অতি সংক্রামক ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন রোধে সরকার ১৩ জানুয়ারি থেকে নতুন বিধিনিষেধ আরোপ করতে চলেছে। নতুন বিধিনিষেধে উন্মুক্ত স্থানে সব ধরনের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও সমাবেশ বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। এছাড়া সব ধরনের গণপরিবহন চলবে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে।

এই বিধিনিষেধ আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে। যাত্রীবাহী আন্তঃনগর ট্রেন পরিচালনার ক্ষেত্রে রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে টিকিট বিক্রিতে কয়েকটি সংশোধন আনা হয়েছে।

এগুলো হলো যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণে আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর বিদ্যমান আসন সংখ্যার অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে। আসন সংখ্যার অর্ধেক অর্থাৎ মোট আসন সংখ্যার ২৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টারে পাওয়া যাবে। বাকি অর্ধেক আসনের অর্থাৎ মোট আসন সংখ্যার ২৫ শতাংশ টিকিট মোবাইল অ্যাপ বা অনলাইনের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর স্ট্যান্ডিং টিকিট ও স্টেশনের প্ল্যাটফরম টিকিট বিক্রি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ থাকবে। রেলপথ মন্ত্রণালয় অনুমোদিত ইমার্জেন্সি কোটা ও ম্যানুয়াল অনুযায়ী কোটা ব্যতীত আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রিতে সব ধরনের কোটা ব্যবস্থা রহিত করা হবে। কাউন্টারে টিকিট বিক্রি ও ট্রেন ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাত্রীদের মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে। প্রচলিত নিয়মানুযায়ী ও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে আন্তঃনগর ট্রেনে ক্যাটারিং সেবা প্রদান ও রাত্রিকালীন বেডিং সরবরাহ করা হবে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close