প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ০৯ ডিসেম্বর, ২০২১

ভারতে সেনাকপ্টার বিধ্বস্ত

প্রতিরক্ষা প্রধান জেনারেল রাওয়াতসহ নিহত ১৩

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধান চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত নিহত হয়েছেন। তার স্ত্রীসহ হেলিকপ্টারের আরো ১২ আরোহীও প্রাণ হারিয়েছেন এ দুর্ঘটনায়। গতকাল বুধবার দুপুরে তামিলনাড়ুতে এই দুর্ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় ভারতীয় বিমানবাহিনী মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

ভারতের গণমাধ্যমগুলো জানায়, দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে তামিলনাড়ুর নীলগিরি হিলস এলাকায় ভারতীয় বিমানবাহিনীর ওই হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। দুপুর ২টার দিকে ভারতীয় বিমানবাহিনী এই দুর্ঘটনার খবর প্রকাশ করে। তাতে জানানো হয়, এমআই সেভেনটিন ভি৫ হেলিকপ্টারটিতে ১৪ আরোহী ছিলেন। তাদের মধ্যে ৫ জন ক্রু এবং বাকি ৯ জন যাত্রী। যাত্রীদের মধ্যে জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তার স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াত ছাড়া সেনা কমান্ডোরা ছিলেন। পরে সন্ধ্যায় জানানো হয়, হেলিকপ্টারের ১৪ আরোহীর মধ্যে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে জেনারেল রাওয়াতকে শনাক্ত করা হয়েছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনী জানায়, বিপিন রাওয়াতকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি তামিলনাড়ুর নিকটবর্তী সুলুরের একটি বিমানঘাঁটি থেকে উড্ডয়ন করেছিল। তিনি রাজ্যের উরাহগামানরালামে অবস্থিত একটি ডিফেন্স সার্ভিস স্টাফ কলেজে যাচ্ছিলেন।

৬৩ বছর বয়সি জেনারেল বিপিন রাওয়াত ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে ভারতের প্রথম চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ভারতের সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীকে সমন্বয়ের জন্য ওই পদ সৃষ্টি করা হয়েছিল। চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ হিসেবে ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর প্রধান সামরিক উপদেষ্টার ভূমিকা পালন করতেন সাবেক সেনাপ্রধান রাওয়াত। পাশাপাশি ভারতের রাজনৈতিক নেতৃত্বের পরামর্শকের ভূমিকাও পালন করতেন তিনি।

১৯৭৮ সালে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হিসেবে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে যোগ দেন রাওয়াত। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে সেনাপ্রধান নিযুক্ত হন রাওয়াত। সেনাবাহিনীতে চার দশকের পেশাগত জীবনে ভারতের সংঘাতপ্রবণ জম্মু ও কাশ্মীরে কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি চীন সীমান্তেও ভারতীয় বাহিনীকে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই জেনারেল।

১৯৫৮ সালের ১৬ মার্চ উত্তরাখণ্ডের পৌড়ীর এক গঢ়ওয়ালি রাজপুত পরিবারের জন্ম বিপিনের। তার বাবা লক্ষ্মণ সিংহ রাওয়াত ছিলেন ভারতীয় সেনার লেফটেন্যান্ট জেনারেল।

জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর সাংবিধানিক সর্বাধিনায়ক রাষ্ট্রপতি কোবিন্দ টুইটারে শোকবার্তায় লিখেছেন, ‘জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং তার স্ত্রী মধুলিকা জির অকাল মৃত্যুতে আমি মর্মাহত ও ব্যথিত। জাতি এক বীর সন্তানকে হারাল। মাতৃভূমির জন্য তার চার দশকের নিঃস্বার্থ সেবা নায়কোচিত এবং ব্যতিক্রমী বীরত্বের সূচক। তার পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা জানাই।’

রাওয়াতের স্মৃতিচারণ করে বুধবার একাধিক টুইট করেছেন নরেন্দ্র মোদি। একটি টুইটে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, ‘জেনারেল বিপিন রাওয়াত একজন অসামান্য সেনানী ছিলেন। ছিলেন একজন প্রকৃত দেশপ্রেমিক। দেশের সশস্ত্র বাহিনী এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থার আধুনিকীকরণে তার অবদান গুরুত্বপূর্ণ। কৌশলগত অবস্থানের প্রশ্নে তার অন্তর্দৃষ্টি এবং দৃষ্টিভঙ্গি ছিল ব্যতিক্রমী। তার মৃত্যু আমাকে গভীরভাবে শোকাহত করেছে। ওম শান্তি।’

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close