খুনি মাজেদের লাশ সোনারগাঁয়ে দাফন

প্রকাশ | ১৩ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকরের পর লাশ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে শ্বশুরবাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। গত শনিবার মধ্যরাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়। পরে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের পর সোনারগাঁয়ের শম্ভুপুরা ইউনিয়নের হোসেনপুর উপস্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাশে তার শ্বশুর হাজি শামসুদ্দিন সরকারের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এ নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ খুনির লাশ অপসারণের দাবি জানিয়েছেন তারা। এলাকাবাসীর দাবি, এই খুনির লাশ সোনারগাঁয়ে এনে দাফন করে আমাদের কলঙ্কিত করা হয়েছে। লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে সোনারগাঁকে কলঙ্কমুক্ত করা হোক।

শম্ভুপুরা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ নেতা মোতালেব মিয়া বলেন, খুনি মাজেদের লাশ উত্তোলন করে ইউনিয়নবাসীকে কলঙ্কমুক্ত করতে হবে। নয়তো সারা জীবন এ কলঙ্ক আমাদের বয়ে বেড়াতে হবে।

শম্ভুপুরা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি টিটু বলেন, এই ইউনিয়নে খুনির লাশের কবর রাখতে দেওয়া হবে না।

সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহ্বায় ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, এ খুনিকে সোনারগাঁয়ে দাফন করা আমাদের জন্য লজ্জাজনক। লাশ উত্তোলনে প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

হোসেনপুর এলাকায় বসবাসরত সোনারগাঁও থানা আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি আবু সিদ্দিক মোল্লা জানান, আবদুল মাজেদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যা করেছে। জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করেছে। তার মতো আত্মস্বীকৃত খুনির স্থান সোনারগাঁয়ের পবিত্র মাটিতে হবে না। এ ব্যাপারে ওসমান গণি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা জামান মোল্লা জানান, সোনারগাঁওয়ের পবিত্র ভূমিতে খুনি মাজেদের লাশ রাখতে দেওয়া হবে না। এ ব্যাপারে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। প্রশাসন এগিয়ে না এলে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের নেতাদের নিয়ে কবর থেকে লাশ তুলে মেঘনা নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হবে।

এর আগে শনিবার বিকালে বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি মাজেদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ার পর তার লাশ ভোলার মাটিতে না পাঠানোর দাবি জানান ভোলা-৩ (লালমোহন-তজুমদ্দিন) আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন। তার নির্বাচনী এলাকা লালমোহন উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তিনি।

 

"