আন্তর্জাতিক ডেস্ক

  ২৪ জুন, ২০২৪

ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য পশ্চিমাই দায়ী : নাইজেল ফারাজ

রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের জন্য পশ্চিমা বিশ্বকে দায়ী করে বিতর্কিত মন্তব্য করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন ব্রিটেনের অভিবাসনবিরোধী রিফর্ম ইউকে দলের নেতা নাইজেল ফারাজ। শুক্রবার বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেন, আমরাই এই যুদ্ধের জন্য উসকানি দিয়েছি। যদিও হামলা চালানো অবশ্যই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের একটি ভুল।

পুতিন সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে ফারাজ বলেন, ‘ব্যক্তি হিসেবে আমি তাকে পছন্দ করি না, কিন্তু একজন রাজনৈতিক প্রশাসক হিসেবে আমি তাকে প্রশংসা করি। কারণ তিনি রাশিয়াকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হয়েছেন।’

ফারাজের এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। তিনি বলেন, ফারাজের দাবি ‘সম্পূর্ণ ভুল এবং এটা কেবল পুতিনের হাত শক্তিশালী করবে’। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেমস ক্লেভারলি ফারাজকে ‘ইউক্রেনের ওপর বর্বর আক্রমণের জন্য পুতিনের জঘন্য যুক্তির প্রতিধ্বনি’ করার জন্য তীব্র ভাষায় সমালোচনা করেছেন। সাবেক কনজারভেটিভ প্রতিরক্ষামন্ত্রী টোবিয়াস এলউড ফারাজের মন্তব্যকে ‘হতাশাজনক’ আখ্যা দিয়ে বলেন, ‘চার্চিল সমাধিতে শুয়ে কাঁপছেন’। লেবার পার্টির ছায়া প্রতিরক্ষামন্ত্রী জন হিলি ফারাজের অবস্থানকে ‘লজ্জাজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন যে এই মন্তব্যের কারণে তিনি ‘আমাদের দেশের যেকোনো রাজনৈতিক পদে অযোগ্য’।

সাতবার ওয়েস্টমিনিস্টারের জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেও ব্যর্থ হয়েছেন ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সাবেক সদস্য ফারাজ। আগামী মাসে ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে পূর্ব ইংল্যান্ডের ক্লেক্টন থেকে আসন জয়ের জন্য তিনি আবারও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ব্রেক্সিটের মুখপাত্র ফারাজ যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠ। ফারাজ ২০২৯ সালে প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close