প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ২৫ নভেম্বর, ২০২২

ঘুটঘুটে অন্ধকারে ইউক্রেন

একদিনে রাশিয়ার ৭০ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা * বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অধিকাংশ শহর * চরম বাধাগ্রস্ত পানি সরবরাহ

ইউক্রেনে একদিনে আবারও ৭০ টির মতো ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। স্থানীয় সময় বুধবার (২৩ নভেম্বর) ইউক্রেনজুড়ে বিভিন্ন শহরে এই ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়। এতে ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে থাকা তিনটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রই জাতীয় বিদ্যুৎ গ্রিড থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ফলে দেশটিতে বিদ্যুৎ এবং পানি সরবরাহ ব্যবস্থা চরমভাবে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। অধিকাংশ অঞ্চলে নেমে এসেছে ঘুটঘুটে অন্ধকার।

এ ঘটনায় রাশিয়াকে ‘মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের’ জন্য অভিযুক্ত করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টে ভলোদিমির জেলেনস্কি। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে দেওয়া ভাষণে তিনি রাশিয়ান সন্ত্রাসের তীব্র সমালোচনা করেন। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- ইউক্রেনের সশস্ত্রবাহিনী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলেছে, রাশিয়া বুধবার (২৩ নভেম্বর) ইউক্রেনজুড়ে বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে প্রায় ৭০টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। যার ফলে দেশব্যাপী বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহ বিঘিœত হয়েছে।

ইউক্রেনের সেনাবাহিনী আরও বলেছে, রাশিয়া ইউক্রেনের বিভিন্ন এলাকার জ্বালানি অবকাঠামোকে লক্ষ্য করে বিমান থেকে বোমা হামলাও চালিয়েছে। সেনাবাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সব মিলিয়ে ৭০ টির মতো ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছে। যার মধ্যে ৫১ টিকে গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে।

এদিকে, ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে থাকা তিনটি পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রই জাতীয় গ্রিড থেকে এখনো বিচ্ছিন্ন রয়েছে। দেশটির পারমাণবিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা রাশিয়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর বিষয়টি জানিয়েছে।

ইউক্রেনের পারমাণবিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা এনার্জোঅ্যাটম এক বিবৃতিতে বলেছে, রাশিয়ার আক্রমণের ফলে এখনো রিভেনস্কা, পিভদেনৌক্রাইনস্কা এবং ক্ষ্মেলনিৎস্কা পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে এখনো জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে। যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই এসব বিদ্যুৎকেন্দ্র জাতীয় গ্রিড থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close