প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ০৯ আগস্ট, ২০২২

পীত সাগরে চীনের নতুন সামরিক মহড়া

তাইওয়ানের চারপাশ ঘিরে নজিরবিহীন সামরিক মহড়া শেষ না হতেই কোরীয় উপদ্বীপের কাছে পীত সাগরে নতুন সামরিক মহড়া শুরু করেছে চীন। খবর বিবিসির।

চীনের মেরিটাইম সেফটি প্রশাসন জানিয়েছে, চীনের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে পীত সাগরের পাঁচটি অঞ্চলে সোমবার (৮ আগস্ট) থেকে মহড়া চলবে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। এ ছাড়া বোহাই? সাগরের চারটি অঞ্চলে এক মাস ধরে সামরিক মহড়া চলবে। এসব মহড়ায় তাজা গুলি ব্যবহার হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরকে কেন্দ্র করে ক্ষুব্ধ চীন তাইওয়ান ঘিরে গত বৃহস্পতিবার মহড়া শুরু করে। তাইওয়ানের আকাশ ও সমুদ্রসীমায় মহড়া পরিচালনা করে তারা।

মহড়ার বিষয়ে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় কোনো বিবৃতি না দিলেও দেশটির সামরিক বাহিনীর পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড জানিয়েছে, মহড়ায় স্থলভাগে সব ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করে যৌথ হামলা ও দূরপাল্লার বিমান হামলার সামর্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তাইওয়ান ঘিরে এমন ছয়টি অঞ্চলে চীন মহড়া চালিয়েছে, এতে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে তাইওয়ান।

তাইপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, তাইওয়ানের মূলদ্বীপে ও জলসীমায় হামলা চালানোর অনুকরণে তাইওয়ান প্রণালিতে মহড়া চালিয়েছে চীন। মূলদ্বীপ ছাড়াও তাইওয়ানের দূরের দ্বীপগুলোতেও ড্রোন পাঠিয়েছে বেইজিং। তাইপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় নিশ্চিত করেছে, তাইওয়ানের মূল দ্বীপে ও জলসীমায় জাহাজে হামলা চালানোর অনুকরণ করে তাইওয়ান প্রণালিতে যুদ্ধবিমান, যুদ্ধজাহাজ ও ড্রোন পাঠিয়েছে চীন। জবাবে নিজেদের যুদ্ধবিমান ও যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করে তাইপে।

তাইওয়ানের আকাশ ও সমুদ্রসীমায় চীনের সামরিক মহড়াকে উসকানিমূলক ও কাণ্ডজ্ঞানহীন বলছে হোয়াইট হাউস। স্থানীয় সময় শনিবার (৬ আগস্ট) হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র বলেন, ‘তাইওয়ানের স্থিতিশীলতা নষ্ট করতে চীনের এই মহড়া। চীন উসকানিমূলক ও কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজ করছে। চীনের হিসাব-নিকাশে ভুল রয়েছে।

তাইওয়ান স্বতন্ত্র দাবি করলেও চীন তাইওয়ানকে নিজেদের বলে মনে করে। এর আগে চীনের প্রেসিডেন্ট তাইওয়ানকে একত্র করার ঘোষণাও দেন। অন্যদিকে, তাইওয়ানকে আক্রমণ করলে যথাযথ জবাব দেওয়ার হুশিয়ারি উচ্চারণ করে যুক্তরাষ্ট্র।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close