প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ০৯ আগস্ট, ২০২২

‘হিমার্সের সামনে টিকতে পারছে না রুশ সেনারা’

ইউক্রেনের একটি শহরের মেয়র বলেছেন, ইউক্রেনীয় সেনাদের পদক্ষেপের কারণে পাল্টা হামলার আগেই দখলদার রুশ সেনাদের প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হচ্ছে। মার্কিন সাময়িকী নিউজউইকের এক প্রতিবেদনে মেলিতোপোলের মেয়র ইভান ফেদোরভের এ মন্তব্য প্রকাশিত হয়েছে।

সোমবার সকালে টেলিগ্রামে ফেদোরভ বলেছেন, সম্প্রতি নির্ভুল আঘাতে সক্ষম হিমার্স দিয়ে পরিচালিত হামলায় শতাধিক রুশ সেনা নিহত হয়েছে।

টেলিগ্রামে তিনি বেশ কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছেন। এগুলোতে দেখা গেছে, ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হচ্ছে।

ফেদোরভ বলেন, আজ নির্ভুল হিমার্স ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে মেলিতোপোলের একটি শিল্প অবকাঠামোতে দখলদারদের অবস্থানে হামলা চালানো হয়েছে।

নিউজউইককে তিনি বলেছেন, পুরোনো একটি সামরিক বিমানবন্দরে রুশ ঘাঁটি ছিল একটি লক্ষ্যবস্তু। অপর লক্ষ্যবস্তু ছিল একটি পুরোনো কারখানা, যেটিকে সামরিক গুদাম হিসেবে ব্যবহার করছে দখলদাররা।

তিনি জানান, ইউক্রেনপন্থিদের কাছ থেকে রুশ সেনাদের এসব অবস্থানের তথ্য পাওয়া গেছে।

টেলিগ্রামে প্রকাশিত বার্তায় মেয়র ফেদোরভ আরো লিখেছেন, প্রাথমিক তথ্য অনুসারে, বেশ কিছু সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস হয়েছে। রাতে অস্থায়ী ব্যারাকে থাকা শতাধিক রুশ সেনা নিহত হয়েছে।

তিনি আরো লিখেছেন, হিমার্স আমাদের খুব কাজে লাগছে। হিমার্স মেলিতোপোলে আসার পর আমরা একাধিক রুশ অবস্থান ধ্বংস করেছি।

রাশিয়াকে ‘নিশ্চিহ্ন’ করতে চায় পশ্চিমারা : যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়াকে নিশ্চিহ্ন করতে চাইছে বলে অভিযোগ করেন সাবেক রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ। পশ্চিমারা রাশিয়ার বিরুদ্ধে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করছে বলে মন্তব্য করেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের এই ঘনিষ্ঠজন।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় তাজ নিউজ এজেন্সিকে মেদভেদেভ বলেন, লক্ষ্য একটাই তাদের, রাশিয়াকে শেষ করে দেওয়া। ইউক্রেন ইস্যুতে পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, ইউক্রেনে একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে রাশিয়া। আমাদের লক্ষ্য সেখানে শান্তি ফিরিয়ে আনা।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে হামলা চালিয়ে আসছে রুশ বাহিনী। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে মস্কোর সম্পর্ক চরমে পৌঁছেছে। পুতিন, তার দুই মেয়ে, দেশটির আর্থিক প্রতিষ্ঠান, সামরিকসহ বহু খাতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছে রাশিয়া। অন্যদিকে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা প্রতিহতে জেলেনস্কির সরকারকে বিপুল পরিমাণ সামরিক ও আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে পশ্চিমারা।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close