প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১

পুজদেমন ইতালিতে আটক

স্পেনের গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় কাতালুনিয়ার স্বাধীনতাপন্থি নেতা কার্লেস পুজদেমনকে আটক করেছে ইতালি।

২০১৭ সালে স্পেন থেকে বিচ্ছিন্ন হতে চেয়ে করা এক গণভোট আয়োজনের জন্য মাদ্রিদের সরকার তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ করে। স্পেনের আদালত ওই গণভোটকে অবৈধও ঘোষণা করেছিল। সেসময় কাতালুনিয়ার প্রেসিডেন্ট থাকা পুজদেমন ভোটের পর বেলজিয়ামে পালিয়ে যান। এরপর থেকে তিনি সেখানেই থাকছেন; এখন তিনি ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টেরও সদস্য।

কাতালান লোককথা উৎসবে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার তিনি ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ সার্দিনিয়ায় যান; আলগেরো বিমানবন্দরে নামার পরপরই তাকে আটক করা হয় বলে তার আইনজীবীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। শুক্রবার পুজদেমনকে আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।

সাবেক এ কাতালান প্রেসিডেন্টকে ছেড়ে দেওয়া হবে নাকি তাকে স্পেনের হাতে তুলে দেওয়া হবে সার্দিনিয়ার আদালতের বিচারক তা ঠিক করবেন। ২০১৭ সালের কাতালান গণভোট স্পেনে কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক সংকটের সৃষ্টি করেছিল।

গণভোটে স্বাধীনতার পক্ষে জনরায় আসার পর কাতালান আঞ্চলিক পার্লামেন্ট স্বাধীনতা ঘোষণা করেছিল, এরপর মাদ্রিদ ওই অঞ্চলের ওপর কেন্দ্রের সরাসরি শাসন চাপিয়ে দেয়।

স্বাধীনতাপন্থি আরও দুই নেতাকে নিয়ে পুজদেমন বেলজিয়ামে পালিয়ে গেলেও গণভোট আয়োজনে সম্পৃক্ত থাকায় রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে ৯ কাতালান নেতাকে কারাদ- দেয় স্পেন। চলতি বছরের জুনে দেশটির এখনকার প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ তাদের ক্ষমা করে দেন। পুজদেমন ও তার আঞ্চলিক সরকারের মন্ত্রিসভার ২ সদস্যকে দেশে ফেরাতে ব্যর্থ হয় মাদ্রিদ; স্বাধীনতাপন্থি এ ৩ নেতা ২০১৯ সালে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের নির্বাচনে বিজয়ী হন। ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের সদস্য হওয়য় পুজদেমন প্রথম দিকে বিচার থেকে ছাড় পাওয়ার সুবিধা ভোগ করলেও এ বছরের মার্চে পার্লামেন্ট সেই সুবিধা বাতিল করে দেয়। তার বিরুদ্ধে স্পেনের গ্রেপ্তারি পরোয়ানার বৈধতা আছে কি না, ইতালির বিচার বিভাগকে এখন সেই প্রশ্নের ফয়সালা করতে হবে।

কাতালুনিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট পেরে আরাগোনেস তার ভাষায় পুজদেমনের ওপর চলা ‘নির্যাতনের’ নিন্দা জানিয়েছেন। আরাগোনেসও কাতালুনিয়ার স্বাধীনতাপন্থিদের একজন।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close