সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

  ১৫ আগস্ট, ২০২২

দুর্গম চরাঞ্চলে উদ্ধার ৩৫ চোরাই বাইক

সিরাজগঞ্জের দুর্গম চরাঞ্চলের মেছড়া ইউনিয়নের রূপসা বাজার থেকে ৩৫টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছেন সদর থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশের সদস্যরা। শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকালে পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে উপজেলার রূপসা বাজার এলাকা থেকে এই মোটরসাইকেলগুলো উদ্ধার করে। এ সময় আটটি মোটরসাইকেলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রবিবার (১৪ আগস্ট) সকালে সিরাজগঞ্জ সদর থানার (ওসি অপারেশন) সুমন কুমার দাস এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, দীর্ঘদিন যাবত জেলা সদরসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে কয়েকটি সংঘবদ্ধ চোরচক্র মোটরসাইকেল চুরি করে সিরাজগঞ্জের দুর্গম চরাঞ্চলের মেছড়া ইউনিয়নের রূপসা বাজারে কেনাবেচা করত- এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার বিকালে সদর থানা পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা, ডিবি পুলিশ ও ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্টের নেতৃত্বে একটি যৌথ টিম রূপসা বাজারে বিশেষ অভিযান চালায়। এ সময় বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ৭০টি মোটরসাইকেল আটক করা হয়। এরমধ্যে ৩৫টি মোটরসাইকেলের বৈধ কাগজপত্র থাকায় মোটরসাইকেলগুলো ছেড়ে দেওয়া হয়। বাকি মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকায় সেগুলো উদ্ধার করে থানা হেফাজতে আনা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, উদ্ধার মোটরসাইকেলগুলোর মধ্যে কিছু চোরাই মোটরসাইকেল রয়েছে। এ বিষয়ে মোটরসাইকেলের মালিকানা যাচাইসহ পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানেই কয়েকটি সংঘবদ্ধ চোরচক্র রয়েছে। তারা মোটরসাইকেল চুরি করে নিরাপদ স্থান হিসেবে দুর্গম চরাঞ্চল এনে বিক্রি করত। চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল উদ্ধারে পুলিশসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে। শনিবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সদর উপজেলার দুর্গম মেছড়া ইউনিয়নের রূপসা বাজারে অভিযান চালিয়ে ৭০টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। এরমধ্যে ৩৫টির কাগজপত্র থাকায় মালিকদের মোটরসাইকেলগুলো বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। এরমধ্যে আটটি মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকায় মামলা করা হয়েছে। বাকি ৩৫টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে সদর থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close