নোয়াখালী প্রতিনিধি

  ১৭ মে, ২০২২

সুবর্ণচরে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় কৃষিমন্ত্রীর

নায়াখালী জেলার সুবর্ণচরে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা করপোরেশন (বিএডিসি), উপজেলার আঞ্চলিক সুগারক্রপ গবেষণা কেন্দ্র, শস্য কর্তন, মাঠপর্যায়ে সয়াবিন, মাল্টা বাগান, ভুট্টা ও সূর্যমুখীসহ বিভিন্ন ফসলি জমি পরিদর্শন করে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক। গত রবিবার উপজেলার বিভিন্ন ফসলি জমি পরিদর্শন শেষে বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে পৃথকস্থানে কৃষক এবং সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, লবণাক্ততা উপকূলীয় এলাকার একটি অন্যতম সমস্য। লবণাক্ত জমিতে চাষোপযোগী জাত উদ্ভাবিত হয়েছে। লবণাক্ত এলাকায় লাউ, সিম, তরমুজ, সূর্যমুখী, মিষ্টিআলু ও সয়াবিনসহ বিভিন্ন ফসলের ফলন ভালো হয়। এ ফসলগুলোর ক্রপিং প্যাটার্নে অন্তর্ভুক্ত করে চর এলাকার প্রত্যেকটি জমি আবাদের আওতায় আনতে হবে।

মতবিনিময়ে শেষে কৃষকদের তালের চারা উৎপাদন, রোপণ, পরিচর্যা ও বজ্রপাত বিষয়ক জনসচেতনতা সৃষ্টি এবং বীজ বিতরণ করা হয়। এ সময় কৃষি সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম, বিএডিসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহজাহান কবীর, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম, সুগারক্রপ রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক আমজাত হোসেন, নোয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণ, জেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ এ এইচ খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম, সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৈতী সর্ববিদ্যা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হারুন অর রশিদ, বিএডিসির সুবর্ণচরের প্রকল্প পরিচালক আজিম উদ্দিনসহ কৃষি মন্ত্রণালয়ের অন্য কর্মকর্তা, সাংবাদিক, রাজনৈতিকব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি ও জেলা ও উপজেলাসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close