reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৬ মে, ২০২২

অপ্রতিরোধ্য ম্যাথিউস, তবুও স্বস্তিতে বাংলাদেশ

ছবি : সংগৃহীত

স্বস্তিতে মধ্যাহ্ন বিরতিতে গেল বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে সফরকারীদের সংগ্রহ ২ উইকেট হারিয়ে ৬৯ রান। গলার কাঁটা হয়ে ক্রিজে আছেন ম্যাথিউস। তিনি অপরাজিত আছেন ১৪৭ রানে।

তবে দিনের শুরু থেকে শাসন করে গেছেন লঙ্কানরা। রানের চাকা সচল রেখেছিলেন। ম্যাথিউস-চান্দিমাল জুটিতে দলীয় স্কোর ৩০০ পার হয়ে যায়। চান্দিমাল ফিফটি করে আরও আগ্রাসী হলেন। মধ্যাহ্ন বিরতির দুই ওভার আগেই নাঈম আসেন ত্রাতা হয়ে। ১১৪তম ওভারে নাঈম ফেরালেন সেট ব্যাটসম্যান চান্দিমাল ও নতুন ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকবেলাকে। তাতেই স্বস্তিতে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

প্রথম দিন যেখানে শেষ করেন, সেখান থেকেই সোমবার (১৬ মে) চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুরু করেন শ্রীলঙ্কার দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস আর দীনেশ চান্দিমাল। তাদের আগের দিনের ৭৫ রানের অবিচ্ছেদ্য জুটি কিছুতেই থামাতে পারছিলেন না সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলামরা। স্বাগতিক বোলারদের আক্ষেপে পুড়িয়ে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছিল ম্যাথিউস আর চান্দিমালের ব্যাট। মধ্যাহ্নভোজের আগে চান্দিমালকে আউট করে স্বস্তি ফেরান নাঈম।

প্রথম সেশনের শেষভাগে চান্দিমালের পর একই ওভারে নতুন ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকওয়েলাকে ফেরান নাঈম। আগের দিনের প্রথম সেশনের মতো এই অফ স্পিনারের কল্যাণে স্বস্তির দেখা পেলেও অপ্রতিরোধ্য ম্যাথিউস। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৩২৭ রান। দেড়শ রানের কোটার দিকে ছোটা ম্যাথিউস ১৪৭ এবং নতুন ব্যাটসম্যান রমেশ মেন্ডিস ১ রান নিয়ে দিনের দ্বিতীয় সেশন শুরু করবেন।

মুমিনুল হকের দল সুযোগ অবশ্য পেয়েছিল দিনের শুরুতে। ১১৪ রানে দিন শুরু করা ম্যাথিউসকে ফেরানো যেত ১১৯ রানে। সেটি ছিল দিনের চতুর্থ ওভার। খালেদ আহমেদের লেংথ বলে খোঁচা মারেন ম্যাথিউস।

তবে বাংলাদেশ দলের কেউই বুঝতে পারেননি ম্যাথিউসের ব্যাট ছুঁয়ে বল জমা পড়ে কিপার লিটন দাসের হাতে। একটুর জন‍্য ব‍্যাটের কানা নেয়নি ভেবে হতাশা প্রকাশ করলেন বোলার-কিপার। পরে রিপ্লেতে দেখা গেছে ম‍্যাথিউসের ব‍্যাটের কানা ছুঁয়ে লিটনের গ্লাভসে গিয়েছিল বল।

৪ উইকেট হারিয়ে ২৫৮ রান নিয়ে দিন শুরু করা শ্রীলঙ্কার হয়ে ৩৪ রানে অপরাজিত থেকে ব্যাটিংয়ে নামেন চান্দিমাল। প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশ দলকে পেলে যেন আরো ঝলসে ওঠে তার ব্যাট। দেখেশুনে খেলে নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২১তম ফিফটি তুলে নেন এই ডানহাতি। বাংলাদেশের বিপক্ষে চান্দিমালের এটি তৃতীয় ফিফটি। তবে মনোযোগে চিড় ধরে তার। যখন মনে হচ্ছিল, উইকেট শূন্য থেকে এই সেশন পার করবে স্বাগতিকরা, তখন নাঈমের মাধ্যমে রীতিমত নিজের উইকেটটি উপহার দেন চান্দিমাল।

ইনিংসের ১১৪তম ওভারে অফ স্পিনার নাঈমকে রিভার্স সুইপ করতে চেয়েছিলেন চান্দিমাল। বলের লাইন মিস করে এলবিডব্লিউ হন। রিভিউ নিয়েছিলেন, তবে কাজে আসেনি। ২ চার ও ৩ ছয়ে ১৪৮ বলে ৬৬ রান করেন চান্দিমাল। তার আউটে ভেঙে যায় ম্যাথিউসের সঙ্গে ১৩৬ রানের জুটি। একই ওভারে ডিকওয়ালাকে বোল্ড করে সাজঘরের পথ দেখান নাঈম। এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে ৩ রান। এটি ইনিংসে নাঈমের চতুর্থ শিকার।

এই সেশনে এই দুটি উইকেটই হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। তবে অন্যপ্রান্তে দুই উইকেট হারালেও টলানো যাচ্ছে না ম্যাথিউসের ব্যাট। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে নিজের প্রথম সেঞ্চুরিটাকে দেড়শর দিকে টিনে নিয়েছেন তিনি। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশন শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৩২৭ রান। ম্যাথিউস ১৪৭ এবং নতুন ব্যাটসম্যান রমেশ ১ রান নিয়ে দিনের দ্বিতীয় সেশন শুরু করবেন।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
চট্টগ্রাম টেস্ট,দ্বিতীয় দিন,চান্দিমাল,নাঈম,ম্যাথিউস
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close