শীর্ষ শত কোটিপতির ক্লাবে জুকারবার্গ

প্রকাশ | ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৯:৩২

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের ‘অতি ধনী’র সবচেয়ে বিশেষ ক্লাবে নিজের নাম যুক্ত করলেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গ। বৃহস্পতিবার ফেসবুকের এই প্রধান নির্বাহী শত কোটিপতি হয়েছেন; এদিন তার সম্পদ বেড়ে ১০০ বিলিয়ন ডলার হয়েছে।

ক্ষুদে ভিডিও শেয়ারিংয়ের চীনা অ্যাপ টিকটকের বিকল্প হিসেবে ‘ইন্সটাগ্রাম রিলস’ নামের নতুন একটি ভিডিও ফিচার যুক্তরাষ্ট্রে চালুর ঘোষণা দেয়ার পর বৃহস্পতিবার তার সম্পদের পরিমাণ শত কোটি ডলারে পৌঁছায়। ফলে অ্যামাজনের জেফ বেজোস এবং মাইক্রোসফটের বিল গেটসের সঙ্গে বিশ্বের অতি ধনীর ক্লাবে যুক্ত হলেন মার্ক জুকারবার্গ।

বিশ্বে ধনকুবেরদের তালিকা প্রস্তুতকারী ব্লুমবার্গ বিলিওনেয়ার্সের তথ্য বলছে, ২০০৪ সালে হার্ভাডে পড়াকালীন বন্ধুদের সঙ্গে ফেসবুক প্রতিষ্ঠা করেন মার্ক জুকারবার্গ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্ট এই কোম্পানিতে এখনও ১৩ শতাংশ মালিকানা রয়েছে তার।

৩৬ বছর বয়সী মার্ক জুকারবার্গ ফেসবুকের চেয়ারম্যানের দায়িত্বও পালন করছেন। একই সঙ্গে অন্যান্য অংশীদারদেরও নিয়ন্ত্রণ করেন তিনি।

টিকটকের মতোই ফিচারযুক্ত ইন্সটাগ্রাম রিলস চালুর একদিন পর বৃহস্পতিবার ফেসবুকের শেয়ারের দাম সাড়ে ৬ শতাংশ বেড়েছে। আর এতেই জুকারবার্গের সম্পদে দেখা গেছে উল্লম্ফন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে চীনা ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক নিষিদ্ধের হুমকি দেয়ার পর ইন্সটাগ্রাম রিলস চালু করে ফেসবুক। গত কয়েক বছর ধরে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে টিকটক। এই অ্যাপের মাধ্যমে চীন সরকার ব্যবহারকারীদের তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে বলে সম্প্রতি অভিযোগ তোলে মার্কিন প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার টিকটকের সঙ্গে মার্কিন প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যবসা বন্ধের নির্বাহী আদেশে সই করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্পের এই নির্বাহী আদেশে সাক্ষরের ফলে যুক্তরাষ্ট্রে আগামী ৪৫ দিন পর টিকটকের মালিক প্রতিষ্ঠান বাউটড্যান্সের সঙ্গে সব লেনদেন নিষিদ্ধ হয়ে যাবে।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রে নিজেদের কার্যক্রম মাইক্রোসফটের কাছে বিক্রির আলোচনা করছে চীনা এই কোম্পানি। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টিকটক বিক্রির চুক্তিতে পৌঁছানোর সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন।

ব্লুমবার্গ বলছে, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ফেসবুকের শেয়ারের দাম প্রায় ৩০ শতাংশ বেড়েছে; যা জুকারবার্গের ব্যক্তিগত সম্পদে আরও যোগ করেছে ২ হাজার ২০০ কোটি ডলার। অন্যদিকে, অ্যামাজনের জেফ বেজোসের বেড়েছে ৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলার।

রিলস চালুর এক সপ্তাহ পর বৃহস্পতিবার ফেসবুক জানায়, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রামসহ ফেসবুকের অন্যান্য প্লাটফর্মে রিলসের ব্যবহারকারী ৩০০ কোটিতে পৌঁঁছেছে।

করোনা মহামারিকালে মানুষের ঘরবন্দি জীবনে ব্যবহার বেড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের। আর এতে সম্পদে ফুলে-ফেঁপে উঠছেন প্রযুক্তি ও অনলাইন জায়ান্ট কোম্পানির মালিকরা।

তবে ২০১৫ সালে স্ত্রী প্রিসিলা চ্যানের সঙ্গে প্রতিষ্ঠিত দাতব্য ফাউন্ডেশনে জুকারবার্গ তার সম্পদের ৯৯ শতাংশ দান করার ঘোষণা দেন। ওই বছর ফেসবুকে জুকারবার্গের সম্পদের পরিমাণ ছিল ৪৫ বিলিয়ন ডলার। সদ্যজাত কন্যা ম্যাক্সিমা চ্যান জুকারবার্গের কাছে লেখা এক খোলা চিঠিতে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী এই কর্মকর্তা মানবকল্যাণে নিজের সম্পদের ৯৯ শতাংশ দানের ঘোষণা দেন।

পিডিএসও/এসএম শামীম