ব্রেকিং নিউজ

৮ হাজার পরিবারকে ৭ দিনের খাদ্যদ্রব্য দিলেন উত্তরার হাবিব হাসান

প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১:০৭

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর উত্তরা তথা ঢাকা-১৮ আসন এলাকায় নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে এখন পর্যন্ত বড় ধরণের খাদ্য যোগানোর ঘোষণা দিয়ে কাজ শুরু করেছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ হাবিব হাসান। নিজের ব্যাক্তিগত উদ্যেগে সরকার ঘোষিত লক-ডাউন সময়ে প্রায় ৮ হাজার পরিবারের মাঝে আগামী এক সপ্তাহের খাদ্যের যোগান দিতে শুরু করেছেন তিনি। ঢাকা-১৮ আসন এলাকায় ১২ টি ওয়ার্ডের প্রায় সব কয়টিতে কমবেশি এ সহযোগিতার হাত বাড়িছেন তিনি। স্থানীয় কমিশনার ও বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গের সমন্বয় করে এখন থেকে এ খাদ্য সহায়তা দেওয়া শুরু হয়েছে। 

খাদ্যদ্রব্য বিতিরণের প্রথম দিনে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, ঢাকা-১৮ আসনের বৃহত্তর উত্তরা তথা উত্তর খান, দক্ষিণ খান, উত্তরা পূর্ব, পশ্চিম ও তুরাগ থানা এলকাকে টার্গেট করে এ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী আমার এলাকায় খেটে খাওয়া দিনমজুর শ্রেণির একটি লোকও যাতে না খেয়ে থাকে এজন্য আমিসহ উত্তরার অনেকেই এই ধরণের সহযোগিতা নিয়ে ইতোমধ্যে মাঠে কাজ শুরু করেছি। আমার ব্যাক্তিগত প্রচেষ্টায় আজকে উত্তর খান ও তুরাগে বিতরণ শুরু করেছি। চলতি সপ্তাহের মধ্যে দক্ষিণ খান ও উত্তরা এলাকায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে স্থানীয় কাউন্সিলর ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে আমরা এ কাজ চালিয়ে যাবো। এ খাদ্য সামগ্রি বিতরণে আমরা কে ভোটার বা অস্থায়ী বাসিন্দা তা বিবেচনায় না নিয়ে কর্মসূত্রে যারাই এ এলাকায় বসবাস করছে তাদের সবাইকে আমরা এ খাদ্য সহযোগীতা দিয়ে যাবো, ইনশাল্লাহ।

বিশ্বজুয়ে করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করায় সার্বিক অর্থনৈতিক কার্যক্রমে প্রায় স্থবির হয়ে এসেছে। করোনার এ মহামারী ঠেকাতে পৃথিবীর প্রায় দেশে এখন চলছে লক-ডাউন পরিস্থিতি। বাংলাদেশও এ অবস্থার বাইরে নয়। পৃথিবীর অন্য যে কোনও দেশের তুলনায় এখানে দিন রোজগারী লোকের সংখ্যা অনেক বেশি। রাজধানীর উত্তরের এ অংশে সবচেয়ে বেশি চিন্নমুল মানুষের বসবাস। লক-ডাউন পরিস্থিতিতে দিনমজুর এসব মানুষের খাদ্য সংঙ্কট এখন প্রকট। এ অবস্থায় সমাজের বিত্তবান বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে সাধারণ রোজগারীদের প্রতি।