নিজস্ব প্রতিবেদক

  ০৬ অক্টোবর, ২০২২

জাকির চেয়ারম্যানের প্রতারণায় ব্যবহৃত ২০ গাড়ি জব্দ

ছবি : সংগৃহীত

কুমিল্লার মানিকাচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেনের গাড়ি ব্যবসার প্রতারণায় ব্যবহৃত ২০টি মাইক্রোবাস জব্দ করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেপ্তার জাকিরের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার কুমিল্লাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে গাড়িগুলো জব্দ করে ডিবি তেজগাঁও বিভাগ।

বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

তিনি বলেন, গত ৭ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মুগদা থানায় একটি প্রতারণার মামলা করা হয়। ডিবি তদন্তে বেরিয়ে আসে, জাকির চেয়ারম্যান পোর্ট থেকে স্বল্প দামে গাড়ি কিনে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে টাকা নেন। পরে এসব গাড়ি রেন্ট-এ কারের মাধ্যমে মাসিক ভাড়ায় পরিচালনা করার জন্য ভুয়া চুক্তি করেন। তিনি একই গাড়ির বিপরীতে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে ভুয়া কাগজপত্র মাধ্যমে চুক্তি করেন। একই রেজিস্ট্রেশন নম্বর সংবলিত গাড়ি একাধিক ব্যক্তির কাছে জাল দলিলের মাধ্যমে বিক্রয় করতেন।

বেশির ভাগ সময়ে শুধু ইঞ্জিন নম্বর ও চেসিস নম্বর দিয়ে গাড়ি বিক্রির চুক্তিপত্র বানাতেন জাকির। সেসব গাড়ি নিজেই ভাড়া নিয়ে কয়েক মাস ভাড়া পরিশোধ করতেন। পরে ভাড়া দেওয়া বন্ধ করে দিয়ে গাড়ি কেনার অর্থ আত্মসাৎ করেন।

কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানাধীন ২ নম্বর মানিকাচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির প্রতারণার মাধ্যমে ৬০-৭০টি গাড়ি দেখিয়ে বিভিন্ন পেশাজীবী ৭০০ জনের সঙ্গে প্রতারণা করেন। যাদের মধ্যে ব্যবসায়ী, সরকারি কর্মকর্তা ও সংসদ সদস্য রয়েছেন। একটি গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখিয়ে ৩৭ জনের কাছে স্ট্যাম্প করে বিক্রি করেন। এভাবে গত ১০ বছরে কয়েকশ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন জাকির। আর গত এক যুগে লেগুনাচালক থেকে বনে যান কোটিপতি।

গত ২১ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার মেঘনা থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় জাকির হোসেনকে। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ২০টি মাইক্রোবাস জব্দ করা হয়।

ডিবি প্রধান বলেন, জাকির ৫ থেকে ৬ জনের সহযোগীর সহায়তায় এসব প্রতারণা করতেন। এভাবে গত কয়েক বছরে তিনি প্রতারণার মাধ্যমে হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। গত এক বছরে শুধু মুন্সীগঞ্জ, বিক্রমপুরে ১২২টি গাড়ি বিক্রির কথা বলে প্রতারণা করেছেন। জাকির হোসেনের প্রতিষ্ঠান আর কে মোটরসের নামে এবং তার আত্মীয়স্বজনের নামে ২৭টি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। তার নামে বিভিন্ন থানায় ১২টি প্রতারণার মামলাও রয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
গাড়ি,ডিবি
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close